ব্রাজিলিয়ান আলভেসের চোখে সর্বকালের সেরা মেসি

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

০৪ জুলাই ২০২১, ০৬:৩১ পিএম


ব্রাজিলিয়ান আলভেসের চোখে সর্বকালের সেরা মেসি

ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনায় দীর্ঘদিন একসঙ্গে খেলেছেন লিওনেল মেসি ও দানি আলভেস। অনেক অর্জনের সাক্ষী দুজন। ৩৮ বছর বয়স হলেও এখনো ফুটবলেই ধ্যানজ্ঞান ব্রাজিলের রাইট ব্যাক আলভেসের। চলমান কোপা আমেরিকায় না থাকলেও ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে চোখ তার। ডাক পেয়েছেন ব্রাজিলের অলিম্পিক দলেও। যেখানে দেশের হয়ে খেলতে পারেন বয়সের কোটা ২৩ পার করা তিনজন ফুটবলার। ব্রাজিলের তিনজনের একজন হয়ে সুযোগ পেয়েছেন আলভেস।

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে আলভেস কথা বলেছেন তার উত্থান, ক্যারিয়ার, অলিম্পিক, কাতার বিশ্বকাপ ভাবনা-সহ একাধিক বিষয় নিয়ে। সেখানেই পেশাদার ক্যারিয়ারে রেকর্ড ৪৩টি শিরোপা জেতা আলভেস জানিয়েছেন, তার দেখা সর্বকালের সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি।

এক প্রশ্নের জবাবে আলভেস বলেন, ‘আমি শুধু তাদের ব্যাপারেই বলতে পারি, যাদের সঙ্গে আমি খেলেছি। বেশ কিছু অসাধারণ প্রতিভা দেখেছি, তবে তারা লম্বা সময় ধরে সর্বোচ্চ পর্যায়ে মান ধরে রাখতে পারেনি। তাই সে আর্জেন্টাইন হওয়ার পরও আমি স্বীকার করছি, মেসিই সর্বকালের সেরা ফুটবলার।’

তবে মেসিকে সর্বকালের সেরা বললেও জাতীয় দলের সতীর্থ নেইমার জুনিয়রকে বর্তমান সময়ের সেরা ফুটবলার হিসেবে আখ্যা দেন আলভেস। জানিয়েছেন, নেইমার ব্রাজিলিয়ান হওয়ায় সঠিক মূল্যায়ন পান না কখনোই।

আলভেস ভাষায়, ‘নেইমার অত্যন্ত বিরল প্রতিভা। সে উপযুক্ত সম্মান পায় না। আমাদের দেশে সফল হওয়াটা যেন একটি বড় অন্যায়। আমি মনে করি তাকে ব্রাজিলিয়ান হওয়ার মূল্য পরিশোধ করতে হচ্ছে। সে যদি অন্য দেশের হত, যা যা করেছে, যে রেকর্ডগুলো সে ভেঙ্গেছে, সেটার জন্য ব্রাজিলিয়ানরা তাকে আরো উপরে রেখে মূল্যায়ন করতো। নেইমারের জন্য বাচ্চারা ফুটবল খেলাকে ভালবাসে।’ 

সঙ্গে যোগ করেন আলভেস, ‘আমি যখন ছোট ছিলাম, ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়দের যাদুকরী খেলা আমাকে ফুটবলের প্রেমে পড়তে বাধ্য করেছিল, তাদের ভিন্ন কিছু করার ক্ষমতা ছিল, তারা দেখাত ফুটবলটা আসলে কি। এরপর ফুটবল বিরক্তিকর হয়ে গেল- খুবই ট্যাকটিকাল, শারীরিক। ফুটবল হবে ছবির মত, যা হবে সুন্দর। যেটা নেইমারের খেলায় দেখা যায়। তার মতো যাদুকরী আর কেউ নেই। আমি ফুটবলকে খুব ভালবাসি এবং আমি নেইমারের খেলা দেখতেও খুব ভালবাসি।’

টিআইএস/এটি

Link copied