গার্দিওলাও বেনামি অ্যাকাউন্টে টাকা লুকিয়েছিলেন

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

০৪ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪০ পিএম


গার্দিওলাও বেনামি অ্যাকাউন্টে টাকা লুকিয়েছিলেন

পেপ গার্দিওলা/ফাইল ছবি

গ্রীক পুরাণে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে গিয়ে অশান্তি নিয়ে এসেছিল গোটা পৃথিবীতে। তবে এবার গোটা পৃথিবীতে না হলেও ‘প্যান্ডোরা পেপার্স’ অন্তত নামি দামি ব্যক্তিদের জন্য অশান্তি বয়ে এনেছে ঠিকই। একের পর এক স্বনামধন্য খেলোয়াড়, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, শিল্পীদের লুকানো অর্থের খোঁজ দিয়ে বিপাকেই ফেলছে তাদের। সে তালিকায় এবার নতুন সংযোজন পেপ গার্দিওলার নাম। 

সাবেক বার্সেলোনা খেলোয়াড়, অধিনায়ক, ও কোচ গার্দিওলা ২০২১ সালে একটা চলতি হিসাব অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন অ্যান্ডোরায়। সেখানে তখন রাজস্ব পরিস্থিতি ঠিক করতে জনগনের প্রতি কর মওকুফ করে দেওয়া ছিল। তারই ফায়দা তুলেছিলেন স্প্যানিশ এই কোচ। আর বিষয়টা স্প্যানিশ কর বিভাগকে জানানওনি তিনি। উঠে এসেছে সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অফ ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস কর্তৃক প্রকাশিত প্যান্ডোরা পেপার্সে।

গার্দিওলার ঘনিষ্ঠ এক সূত্র মার্কাকে জানিয়েছে, বাংকা প্রিভাদা দ’আন্দোরায় তার সেই অ্যাকাউন্টে কাতারি ক্লাব আল আহলি থেকে পাওয়া টাকাটা লুকিয়ে রেখেছিলেন তিনি। সেই ক্লাবটিতে ২০০৩ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত খেলেছিলেন গার্দিওলা। 

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয় তখন স্পেনের মানুষদের মধ্যে কর ফাঁকি দেওয়াদের জন্য একটা সুযোগ করে দিয়েছিলেন। কালো টাকা সাদা করার জন্য অর্থের ১০ শতাংশ সরকারকেই দিলেই আর সমস্যা হতো না তখন। গার্দিওলা মূলত এই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছিলেন।

শুধু গার্দিওলাই নয়, আরও অনেক নামী দামী মানুষদের গোপন আর্থিক লেনদেনের খবর ফাঁস হয়েছে এই প্যান্ডোরা পেপার্সে। এতে ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার, পপ তারকা শাকিরাদের নাম যেমন আছে, তেমনি আছে ডজন খুনের অভিযোগ থাকা ইতালিয়ান কুখ্যাত মাফিয়া রাফায়েল আমাতোর নামও উঠে এসেছে।

এনইউ/এটি

Link copied