মারুফের দলকে রুখে দিল পুলিশ 

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৩৭ পিএম


মারুফের দলকে রুখে দিল পুলিশ 

একের পর এক গোল মিস করে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে পয়েন্ট হাতছাড়া করল পুলিশ এফসি। দেশের অন্যতম শীর্ষ কোচ মারুফুল হক নতুন মৌসুমের যাত্রা খুব সুন্দর হয়নি। স্বাধীনতা কাপ ফুটবলে ডি গ্রুপে দু’দলের ম্যাচ ড্র হয়েছে ১-১ গোলে। আজ এই গ্রুপের অন্য ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস খেলবে নৌবাহিনীর বিপক্ষে। 

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে ৩০ সেকেন্ডেই প্রথম গোল পেতে পারত পুলিশ এফসি। একদম গোলমুখে থেকে ফাঁকা পোস্ট পেয়েও গোল করতে পারেননি অধিনায়ক আমিরুল ইসলাম। 

১৩ মিনিটে আবার সুযোগ পেয়েছিল পুলিশ এফসি। বাবলু বল নিয়ে ঢুকে গিয়েছিলেন চট্টগ্রাম আবাহনীর সীমানায়। সেক্ষেত্রে ভালো ডিফেন্ডিং করেছেন শওকত রাসেল। 

২৪ মিনিটে সুবর্ণ এক সুযোগ নষ্ট করেছে পুলিশ এফসি। দলটির আফগানিস্তানের ফরোয়ার্ড আমিরুউদ্দিন শারিফি ভালো অবস্থায় থেকেও বল পাঠিয়ে দেন বাইরে দিয়ে। 

গোল পেতে একের পর এক আক্রমণে চট্টগ্রাম আবাহনীকে কোণঠাসা করে ফেলে পুলিশ এফসি। কিন্তু সেই কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখাই পাচ্ছিল না তারা। 

গোল মিসের মহড়ায় পুলিশ এফসি’র আবারও সুযোগ নষ্ট হয়। ৩২ মিনিটে দুই দুইবার সুযোগ হাতছাড়া হয় তাদের। এ যাত্রায় অবশ্য চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক আজাদ হোসেনের কৃতিত্বও রয়েছে বেশ। প্রথমবার পুলিশের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ড্যানিলসন ও পরেরবার তাদের জার্মানির ফরোয়ার্ড আদিলের শটে বাঁধা হয়ে দাঁড়ান গোলরক্ষক আজাদ হোসেন। অন্তত দুই গোলের লিড নিয়ে বিবরিতে যেতে পারত পুলিশ এফসি, সেখানে গোলশূন্যভাবে শেষ হয়েছে প্রথমার্ধের খেলা। 

৪৮ মিনিটে গোলের দেখা পায় পুলিশ এফসি। গোল করেন তাদের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ড্যানিলসন রদ্রিগেজ। তবে এক মিনিট পরই পেনাল্টি পায় চট্টগ্রাম আবাহনী। বক্সের ভেতর পুলিশ এফসির এক ফুটবলারের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে গোল করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড থ্যাংকগড। 

৬৬ মিনিটে বেশ ভালো একটা সুযোগ পেয়েছিল চট্টগ্রাম আবাহনী। গতি নিয়ে ঢুকে গিয়েছিলেন রুবেল মিয়া। তিনি একাই গোলের চেষ্টা করেছিলেন, তবে সফল হতে পারেন নি। ৮৮ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিল পুলিশ এফসি। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেননি আমিরুদ্দিন শারিফি। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে শেষ হয় ম্যাচ।

এজেড/এনইউ

Link copied