সাবিনাদের বিমান ভাড়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় বিওএ

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১২:৫২ পিএম


সাবিনাদের বিমান ভাড়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় বিওএ

এই বছরের সেপ্টেম্বরে চীনে অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ান গেমস। সাঁতার, অ্যাথলেটিকসের পাশাপাশি গেমসের অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ ডিসিপ্লিন ফুটবল। সেই ফুটবলে জামাল ভূঁইয়াদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত থাকলেও অনিশ্চয়তা রয়েছে সাবিনাদের নিয়ে। 

১৫ ডিসেম্বর ছিল এশিয়ান গেমসে এন্ট্রির ডেডলাইন। সেই সময় নারী ফুটবলের এন্ট্রি দেয়নি বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ)। ক্রীড়াঙ্গনের অন্যতম শীর্ষ এই সংস্থার নির্বাহী কমিটির সভায় মহিলা ফুটবলে এন্ট্রি না দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। 

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন এবার মহিলা দলকে এশিয়ান গেমসে খেলাতে চায়। সাফ অ-১৮ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর সেই আগ্রহ আরো বেড়েছে। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজাকে মহিলা ফুটবলে এন্ট্রি দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন। সেই অনুরোধের প্রেক্ষিতে বিওএ ডেডলাইন পেরিয়ে গেলেও আয়োজকদের সাথে আলোচনা করে নারী ফুটবলের এন্ট্রি দিয়েছে। 

এন্ট্রি হলেও সাবিনাদের এশিয়ান গেমস যাত্রা এখনো নিশ্চিত নয়। এর পেছনে অন্যতম কারণ খরচ। নারী ফুটবল দলের কন্টিনজেন্ট বিশের অধিক। এত বড় দলের বিমান ভাড়া ও আনুষাঙ্গিক খরচও অনেক। যা এখন বিওএ’র ভাবনার কারণ।

এশিয়ান গেমসে নারী ফুটবলে সিনিয়র জাতীয় দল অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল দক্ষিণ এশিয়া ও এশিয়ান পর্যায়ে বয়সভিত্তিক পর্যায়ে ভালো ফল করলেও সিনিয়র দলের পারফরম্যান্স তেমন আশাব্যঞ্জক নয়। সাবিনা, কৃষ্ণা বাদে বয়সভিত্তিক পর্যায়ের ফুটবলরাই জাতীয় দলে খেলেন ফলে এশিয়ার অন্য দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের শক্তির পার্থক্য অনেক। এই বিষয়টিও ভাবছে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন। 

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের মহিলা উইংয়ের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ সাবিনাদের এশিয়ান গেমসে খেলার ব্যাপারে আশাবাদী, ‘নারী ফুটবল দল আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে। আমাদের জাতীয় দল এখনো তরুণ নির্ভর, তাদের খেলে অভিজ্ঞতা ও পরিপক্বতা অর্জন করতে হবে। এশিয়ান গেমস আমাদের জন্য বড় মঞ্চ। সেখানে খেলার অভিজ্ঞতা আমাদের মেয়েদের অবশ্যই কাজে দেবে। ফুটবল দলগত খেলা এখানে খরচ বেশি হবেই। বিওএ সরকারের সাথে এই ব্যাপারে আলাপ করলে অবশ্যই একটা সমাধান হবে।’

বিওএ’র কোষাধ্যক্ষ একে সরকার এশিয়ান গেমসে মহিলা ফুটবলের অংশগ্রহণ সম্পর্কে বলেন, ‘আমরা ফুটবল ফেডারেশনের কাছে নারী ফুটবল দলের সাফল্য সম্পর্কে জানতে চেয়েছি। তাদের কাছ থেকে ফলাফল রিপোর্ট পাওয়ার পর পর্যালোচনা করে নির্বাহী কমিটি এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।’

গেমসের অন্যতম আকর্ষণ অ্যাথলেটিকস। সেই অ্যাথলেটিকস প্রথমে বাদ পড়েছিল এবারের গেমসে। পরবর্তীতে অ্যাথলেটিকস ফেডারেশন বিওএতে চিঠি চালাচালি করে জাম্প ইভেন্টে একটি এন্ট্রি নিশ্চিত করেছে। সদ্য সমাপ্ত জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে ১০০ মিটারে ইংল্যান্ড প্রবাসী ইমরানুর রহমান নতুন রেকর্ড গড়ায় এই ইভেন্টেও এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের এন্ট্রির ব্যাপারে চেষ্টা চলছে। বিওএ’র ব্যয় সংকুলান না হলে বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশন প্রয়োজনে নিজেদের খরচে এই ইভেন্টে ইমরানুরকে খেলাতে চায়।

এজেড/এটি

Link copied