বিশ্ব জিমন্যাস্টিক্সে বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বিতা

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

৩০ মার্চ ২০২৩, ০৫:৩০ পিএম


বিশ্ব জিমন্যাস্টিক্সে বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বিতা

কোচ চো সং ডংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের দুই জিমন্যাস্ট

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সাফল্যের জন্য বাংলাদেশ জিমন্যাস্টিক্স ফেডারেশন বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচ চো সং ডংকে এনেছে। বিশ্বখ্যাত কোচের অধীনে এবার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রথম অংশগ্রহণ করছে বাংলাদেশ। তুরস্কের আনাতোলিয়ায় বিশ্ব জুনিয়র জিমন্যাস্টিক্সে তারা ফাইনাল রাউন্ডে না যেতে পারলেও সামগ্রিক পারফরম্যান্সে উন্নতি হয়েছে।
 
এবার প্যারালাল বার, ভোল্টিং’সহ একাধিক ইভেন্টে অংশ নিয়েছেন দুই জিমন্যাস্ট ম্যালটন টনি ও মং চিং ম্রো। তাদের পারফরম্যান্সে বেশ উন্নতি ও সম্ভাবনা দেখছেন ফেডারেশনের সদস্য ও সাবেক জিমন্যাস্ট হাবিবুর রহমান জামিল। তুরস্কের আনাতোলিয়া থেকে তিনি জানান, ‘আমাদের দুই জিমন্যাস্ট সব বিভাগেই আন্তর্জাতিক মানের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে এবং আগের চেয়ে স্কোরিংয়ে উন্নতি করছে।’

dhakapost
জিমন্যাস্টিক্সে বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিযোগিরা

এর আগে চো সং ডংয়ের অধীনে জিমন্যাস্টরা অলিম্পিকে পদক জেতেন। সেই কোচ এবার বিশ্ব জুনিয়র আসরে বাংলাদেশ দল নিয়ে যাওয়ায় অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন বলে জানান জামিল, ‘বিশ্ব জিমন্যাস্টিক্সে তিনি অত্যন্ত সমাদৃত। তার জিমন্যাস্টরা সব সময় পদক জেতেন, তবে এবার আমাদের জুনিয়রদের নিয়ে তিনি যাওয়ায় অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন। এই চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করেছে ৬০টিরও বেশি দেশ।’

আগামী জুনে এশিয়ান জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপ রয়েছে। সেই টুর্নামেন্টে পদকের সম্ভাবনা দেখছেন সাবেক এই জিমন্যাস্ট, ‘এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ খেলার আগে একটি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের প্রয়োজন ছিল। এর মাধ্যমে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ খেলায় এশিয়ানে আমরা ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে পারি।’

জুনিয়র জিমন্যাস্টিক্সে বাংলাদেশের খেলা শেষ হয়েছে গতকাল। তবে নিজেদের খেলা না থাকলেও ২ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশ দল আনাতোলিয়ায় থেকে অনুশীলন করবে। পরবর্তীতে আগামী ৩ এপ্রিল দেশে পৌঁছাবেন তারা।

এজেড/এএইচএস

Link copied