বাংলাদেশ গেমসে যা কিছু হলো আজ

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

০৮ এপ্রিল ২০২১, ২২:১৬

বাংলাদেশ গেমসে যা কিছু হলো আজ

ক্রিকেটে ফাইনালে জাহাঙ্গীরাবাদ

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস পুরুষ ক্রিকেটে দ্বিতীয় দল হিসেবে ফাইনালে নিশ্চিত করল জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোন। বৃহস্পতিবার শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে চন্দ্রদ্বীপ সাউথ জোনকে ৪০ রানে পরাজিত করেছে জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোন। ৭ এপ্রিল চট্টলা ইস্ট জোনকে ৩৬ রানে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে বরেন্দ্র নর্থ জোন। ১০ এপ্রিল সোনা জয়ের লড়াইয়ে বরেন্দ্র নর্থ জোনের প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোন। ম্যাচ শুরু হবে সকাল ৯টায়।

টস জিতে আগে ব্যাট করা জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোন ৪৯ ওভার ৩ বলে অলআউট হওয়ার আগে ২১১ রান তোলে। শুরুতে ৫০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বসলেও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় দুইশ পার হয় দলটির স্কোর। আরিফুল ইসলাম ইনিংস সর্বোচ্চ ৭৫, শাহরিয়ার আলম মাহিম অপরাজিত ৪৪, সাগর আহমেদ ২২, সানজিদুর রহমান সোহান ১৭, আবু বকর আহমেদ ১৩, মো. রিজওয়ান ১১ রান করেন। চন্দ্রদ্বীপ সাউথ জোনের রাশেদুর ইসলাম, হাসিব হাওলাদার ৩টি করে, মো. রিজওয়ান ও মারুফ হোসেন ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ৪৫ ওভার ২ বলে ১৭১ রানে অলআউট হয়েছে চন্দ্রদ্বীপ সাউথ জোন। হাবিবুর রহমান মুন্না ৫২, শাহরিয়ার সাকিব ২৯, জিল্লুর রহমান ২০, অভিক ঘোষ ১৮, মো. রিজওয়ান ১৩, শাওন কাজী সুমন ১৩ রান করেন। জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোনের আরিফুল ইসলাম, সানজিদুর রহমান সোহান ২টি করে, রেজওয়ান হোসেন ও খালেদ সাইফউল্লাহ ১টি করে উইকেট নেন। জাহাঙ্গীরাবাদ সেন্ট্রাল জোনের পক্ষে ৭৫ রান করা আরিফুল ইসলাম ম্যাচ সেরা হন।

ভারোত্তোলনে আরও দুই রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস ভারোত্তলনে বৃহস্পতিবার দুটি রেকর্ড হয়েছে। ছেলেদের ১০২ কেজি ওজন বিভাগেই রেকর্ড দুটি হয়। সোনা জয়ের পথে ক্লিন এন্ড জার্কে রেকর্ড ১৬০ কেজি উত্তোলন করেন সেনাবাহিনীর আশিকুর রহমান। রুপা জয়ের পথে স্ন্যাচে ১২১ কেজি তুলে রেকর্ড গড়েন বাংলাদেশ আনসারের আমিনুল ইসলাম।

এ ইভেন্টে স্ন্যাচে ১২০ কেজি, ক্লিন এন্ড জার্কে ১৬০ কেজি, মোট ২৮০ তুলে সোনা জিতেছেন আশিকুর রহমান। আমিনুল ইসলাম স্ন্যাচে ১২১, ক্লিন এন্ড জার্কে ১৫৩, মোট ২৭৪ কেজি তুলে রুপা জিতেছেন। ব্রোঞ্জ জয়ের পথে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-এর তোফায়েল আহমেদ স্ন্যাচে ৯০, ক্লিন এন্ড জার্কে ১২১, মোট ২১১ কেজি তুলেছেন।

নারীদের ৭৬ কেজি ওজন বিভাগে আনসারের জহুরা খাতুন নিশা সোনা জয়ের পথে স্ন্যাচে ৭১, ক্লিন এন্ড জার্কে ৯১, মোট ১৬২ কেজি তুলেছেন। রুপা জয়ী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রোকেয়া সুলতানা সাথী স্ন্যাচে ৬৫, ক্লিন এন্ড জার্কে ৮৮, মোট ১৫৩ কেজি তুলেছেন। ব্রোঞ্জ জয়ী বাংলাদেশ জেলের আয়েশা খাতুন পান্না স্ন্যাচে ৫৩, ক্লিন এন্ড জার্কে ৬৬, মোট ১১৯ কেজি তুলেছেন।

তায়কোয়ান্দোতে সালমা ও শ্রাবণীর স্বর্ণ জয়

বঙ্গবন্ধ ৯ম বাংলাদেশ গেমসের তায়কোয়ানদো ডিসিপ্লিন চলছে। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ জিমন্যাশিয়ামে সিনিয়র নারী অনূর্ধ্ব-৬২ কেজি ওজন শ্রেণীতে সালমা খাতুন ও অনূর্ধ্ব-৬৭ কেজি ওজন শ্রেণীতে শ্রাবনী বিশ্বাস স্বর্ণ জিতেছেন।

সিনিয়র নারী মাইনাস ৬২ কেজি ওজন শ্রেণিতে বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপির সালমা খাতুন ১৯-০৬ স্কোরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাথী খাতুনকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছেন। এই ইভেন্টে চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার ইরিন আহমেদ চৌধুরী এবং গাজীপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার জান্নাতুল ফেরদৌস ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন।

স্বর্ণ জিতে ফাইটকে বিদায় মিজানুরের

তার হাত ধরে তায়কোয়ানদো থেকে এসেছিল প্রথম আন্তর্জাতিক স্বর্ণ। সেই মিজানুর রহমান তায়কোয়ানডোর ফাইটিং ইভেন্টকে বিদায় জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সিনিয়র পুরুষ (+৮৭ কেজি) ওজন শ্রেণীর ফাইনালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মো. রফিক খানকে ২৩-০৯ স্কোওে হারিয়ে জাতীয় আসরে ২৯তম সোনার পদক জিতেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মিজানুর রহমান। স্বর্ণ জয়ের পর ৩৮ বছর বয়সী এ তায়কোয়ানদোকা বলেন, ‘এটাই ফাইটিং ইভেন্টে আমার শেষ। ভবিষ্যতে আমি শুধু পুমসে ইভেন্টে খেলব।’


ব্যাডমিন্টন উর্মি ও গৌরব সেরা
 
বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের ব্যাডমিন্টন নারী এককে আনসারের উর্মি আক্তার ২-১ সেটে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বৃষ্টি খাতুনকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছেন।  বৃহস্পতিবার শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ ইনডোর স্টেডিয়ামে সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত ফাইনালে প্রথম সেটে ২১-২৩ পয়েন্টে জিতে লিড নেন সেনাবাহিনীর বৃষ্টি খাতুন। তবে ২১-১৩ ও ২১-১৪ পয়েন্টে পরের দুই সেট জিতে আনসারকে স্বর্ণ উপহার দেন উর্মি আক্তার। 

স্বর্ণ জিতে উর্মি বলেন, ‘দ্বৈতে আমি স্বর্ণ হারিয়েছিলাম। আমার হয়তো ভাগ্যে ছিলো না তাই পাইনি। তবে আমার মনে জেদ কাজ করেছে। তাছাড়া আমি সবশেষ র‌্যাঙ্কিংয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। সেই আত্মবিশ্বাস থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। ১০১৬ সাল থেকে সিনিয়র খেললেও এটাই আমার সেরা সাফল্য।’

পুরুষ এককে সিলেটের গৌরব সিংহ ২-০ সেটে বাংলাদেশ আর্মির আল আমিন জুমারকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছেন। আজ (বৃহস্পতিবার) শহীদ তাজউদ্দিন ইনডোর স্টেডিয়ামে প্রথম সেটে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে ২১-১৯ পয়েন্টে জয় পান গৌরব। সিলেট এনাম একাডেমির এই শাটলার দ্বিতীয় সেট জিতেনেন ২১-১৬ পয়েন্টে। এর আগে নারী এককে সোনা জিতেছেন বাংলাদেশ আনসারের উর্মি আক্তার।

গৌরব সিংহ  বলেন,‘ এর আগে আমি দুই বার ন্যাশনাল র‌্যাঙ্কিংয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। আর একবার ন্যাশনাল ফাইনালে খেলে সালমান ভাইয়ের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েছি। একবার জুনিয়র পর্যায়ে খেলেই শিরোপা জিতি আমি। এসএ গেমসে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছি। আমার বিশ্বাস ফেডারেশন যদি আমাদের দীর্ঘ মেয়াদি ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করে তবে এসএ গেমসে পদক পাবো।’

বাস্কেটবলে নৌবাহিনী চ্যাম্পিয়ন

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের বাস্কেটবলে (পুরুষ) চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী। বৃহস্পতিবার ধানমন্ডির বাস্কেটবল জিমনেশিয়ামে তীব্র উত্তেজনাপূর্ণ ফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে ৫৭-৫২ পয়েন্টে হারিয়ে স্বর্ণ পদক জেতে নৌবাহিনী। 
প্রথম কোয়ার্টারে দুরন্ত ছিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। দলটি এগিয়ে ছিল ২১-৯ পয়েন্টে। 

তবে এরপর বাকি তিন কোয়ার্টারেই দাপট দেখায় বাংলাদেশ নৌবাহিনী। অধিনায়ক শোয়েবের তুখোড় নৈপুণ্যে শেষ হাসি হাসে দলটি। নৌবাহিনীর হয়ে সর্বোচ্চ স্কোর করেন শোয়েব, ২২ পয়েন্ট। মিথুন করেন ১৩ পয়েন্ট। সেনাবাহিনীর হয়ে তনু করেন সর্বোচ্চ ২২ পয়েন্ট। ১০ পয়েন্ট করেন বরকত। 

নারী হ্যান্ডবলের স্বর্ণ আনসারের

বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমসের নারী হ্যান্ডবলে স্বর্ণ জিতেছে বাংলাদেশ আনসার। বৃহস্পতিবার শহীদ (ক্যাপ্টেন) এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ আনসার ৪২-২০ গোলে বাংলাদেশ পুলিশকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতে নেয়। প্রথমার্ধ শেষে ২২-৭ গোলে এগিয়ে ছিলো ২০১৩ বাংলাদেশ গেমসের স্বর্ণজয়ীরা। 

আনসারের খাদিজা আক্তার সর্বোচ্চ ৮ গোল করেন। পুলিশের ২০ গোলের মধ্যে রুবিনা বেগমে একাই করেন ১০ গোল। আসরে  ব্রোঞ্জ জিতেছে নওগাঁ জেলা ক্রীড়া সংস্থা। একই ভেন্যুতে তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচে নওগাঁ ২৬-১৬ গোলে জামালপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থাকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতে নেয়।

ম্যাচশেষে বিজয়ীদের পদক তুলে দেন বিওএ সহ-সভাপতি শেখ বশির আহমেদ মামুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কোহিনুর। 

জুডোর দ্বিতীয় দিনেও আনসারের দাপট

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের জুডো প্রতিযোগিতার প্রথম দিন বিকেএসপির সঙ্গে দাপট দেখিয়েছিল বাংলাদেশ আনসার। দ্বিতীয় দিনও সেই ধারাবাকিতা ধরে রাখল তারা। মিরপুরের শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ৩টি ওজন শ্রেণির মধ্যে দুটির স্বর্ণপদকই জিতেছে বাংলাদেশ আনসার।  

পুরুষ অনূর্ধ্ব-৬৬ ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মো. সাদ্দাম হোসেন। রৌপ্যপদক জিতেছেন বিকেএসপির খালেদুল হাসান মিলু। যৌথভাবে ব্রোঞ্জপদক পান বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. সগীর হোসাইন ও বাংলাদেশ আনসারের তন্ময় আলী। 

মহিলা অনূর্ধ্ব-৫৭ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বাংলাদেশ আনসারের তাবাসসুম তমা জেরিন। ভিডিপির উক্রুহ মারমা জেতেন রৌপ্যপদক। যৌথভাবে ব্রোঞ্জপদক জেতেন রাজশাহী বিভাগের মোছা. তাসলিমা পারভীন কাকলি ও বরিশাল বিভাগের মনিয়া হাসান স্মৃতি।

মহিলা অনূর্ধ্ব-৫২ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বাংলাদেশ আনসারের সিংমা প্রু মারমা। ভিডিপির মাসিনু মারমা জেতেন রৌপ্যপদক। যৌথভাবে ব্রোঞ্জবদক জেতেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সুমি রানী হালদার ও বরিশাল বিভাগের মোছা. সুমাইয়া আক্তার।  


বক্সিংয়ে আনসারই সেরা

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে বক্সিং ডিসিপ্লিনে সেরা হয়েছে বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি। তারা ৫টি স্বর্ণ, ২টি রৌপ্য ও ২টি ব্রোঞ্জপদক জিতেছে।  ৩টি স্বর্ণপদক, ৩টি রৌপ্যপদক ও ২টি ব্রোঞ্জপদক জিতে রানার্সআপ হয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বাংলাদেশ পুলিশ ২টি রৌপ্য ও ২টি ব্রোঞ্জপদক জিতে তৃতীয় হয়েছে। 


ভলিবলে চ্যাম্পিয়ন সেনাবাহিনী ও  আনসার

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস ভলিবলের পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ আনসার ভিডিপি। বৃহস্পতিবার (৮এপ্রিল) বিকেলে নড়াইলের বীরশ্রেষ্ট নূর মোহাম্মাদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত পুরুষ বিভাগের বাংলাদেশ বিমান বাহিনীকে ৩-১ সেটে হারিয়ে শিরোপা জয় করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

এ বিভাগের স্থান নির্ধারনী ম্যাচে তিতাস ক্লাব ৩-১ সেটে পঞ্চগড় জেলা দলকে হারিয়ে তৃতীয় স্থান লাভ করে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করে।
মহিলা বিভাগে বাংলাদেশ পুলিশকে ৩-১ সেটে হারায় বাংলাদেশ আনসার ভিডিপি।

এ বিভাগে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করে খুলনা জেলা দল। তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচে খুলনা জেলা দল ৩-১ সেটে  হারায় নড়াইল জেলা দলকে।

নারী হকির ফাইনালে ঝিনাইদহ ও নড়াইল

মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার প্রথম সেমিফাইনালে ঝিনাইদহ জেলা ৭-০ গোলে দিনাজপুর জেলা দলকে হারিয়ে ফাইনালে নাম লেখায়। জেসমিন আক্তার জেসি একাই করেন ৪ গোল। দুটি গোল করেন রিভা খাতুন। বাকিটি অনন্যা বিশ্বাসের।

আরেক সেমিফাইনালে নড়াইল জেলা দল ১-০ গোলে কিশোরগঞ্জ জেলাকে হারিয়েছে। পেনাল্টি কর্নার থেকে মুক্তা খাতুনের একমাত্র গোল ম্যাচের ভাগ্য লিখে দেয়।

নারী বিভাগ ফাইনাল 
নড়াইল বনাম ঝিনাইদহ (৩.৩০)

পুরুষ বিভাগ ফাইনাল

নৌবাহিনী বনাম সেনাবাহিনী (৫.৩০)

কাবাডির ফাইনাল আগামীকাল

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসে পুরুষ ও নারী কাবাডির ফাইনাল আগামীকাল শুক্রবার। কাবাডি স্টেডিয়ামে দুপুর দুইটা ৪৫ মিনিটে নারী বিভাগে স্বর্ণপদকের জন্য লড়বে বাংলাদেশ আনসার ও পুলিশ। বেলা সাড়ে তিনটায় স্বর্ণপদকের জন্য লড়বে বিমান বাহিনী ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। 

টেনিস এককের সোনা ইমনের, দ্বৈতে রঞ্জন রাম-দিপু লাল জুটির

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস টেনিস এককে সোনা জিতেছেন রাজশাহী অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম টেনিস কমপ্লেক্সের ইমন ইসলাম। রুপা জিতেছেন মাদারীপুরের রুবেল হোসেন। ব্রোঞ্জ পেয়েছেন ঢাকার বিপ্লব। ছেলেদের দ্বৈত ইভেন্টে সোনা জিতেছেন দিপু লাল-রঞ্জন রাম জুটি। রুপা জিতেছেন আনোয়ার হোসেন-অমল রায় জুটি। এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন ফরহাদ-রোমান জুটি।

বৃহস্পতিবার রাজশাহীর অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম টেনিস কমপ্লেক্সে একক ফাইনালে ইমন ইসলাম ৬-৩, ৭-৫ সেটে মাদারীপুরের রুবেল হোসেনকে হারিয়েছেন। স্থান নির্ধারনী ম্যাচে ঢাকার গুলশান ক্লাবের বিপ্লব ৬-৪, ৬-৩ সেটে জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সের কাওছার আলীকে হারিয়েছেন।

ছেলেদের দ্বৈতের ফাইনালে ইন্টারন্যাশনাল ক্লাবের রঞ্জন রাম ও নর্ডিক ক্লাবের দিপু লাল জুটি ৭-৫, ৬-২ সেটে ঢাকা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাবের অমল রায় ও জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সের জুয়েল রানা জুটিকে হারিয়েছেন।

এজেড/এমএইচ

Link copied