৭ কোটি ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট সরাল টিকটক

Dhaka Post Desk

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

০১ জুলাই ২০২১, ০৮:০১ এএম


৭ কোটি ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট সরাল টিকটক

১৩ বছরের কমবয়সীদের অ্যাকাউন্ট সরিয়েছে টিকটক। ছবি : বিবিসি।

চীনা ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক অন্তত ৭ কোটি ৩০ লাখ অপ্রাপ্তবয়স্কের অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দিয়েছে। সম্প্রতি ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে।

বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী অল্পসংখ্যক অপ্রাপ্তবয়স্ক টিকটক ব্যবহার করেন (১ শতাংশ)। প্ল্যাটফর্মটি প্রথমবারের মতো তাদের কমিউনিটি গাইডলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য উপস্থাপন করেছে। 

টিকটক জানায়, নীতিমালা অনুযায়ী ১৩ বছরের কমবয়সীরা প্ল্যাটফর্মটিতে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন না। কিন্তু নানা ফাঁকফোকর বের করে অনেক অপ্রাপ্তবয়স্ক এখানে অ্যাকাউন্ট খুলেছে। সেগুলো সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে-

১. প্ল্যাটফর্মটির নীতিমালা ভঙ্গের কারণে ৬ কোটি অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

২. এর মধ্যে ৮২ শতাংশ ব্যবহারকারীকে অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে জানানো হয়েছে।

৩. ১৯ লাখ ব্যবহারকারী সরাসরি টিকটকের নীতিমালা ভঙ্গ করেছে।

৪. ১ কোটি ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট নীতিমালা ও শর্তভঙ্গের অভিযোগে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

টিকটকের বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই কিশোর-কিশোরী অর্থাৎ ১৩ বছরের উপরে। আর তাই প্ল্যাটফর্মটি তাদের সুরক্ষার দিকেই বাড়তি নজর রাখছে।

Dhaka Post

টিকটকের সুরক্ষা বিভাগের প্রধান করম্যাক কিনান বলেন, ‘ব্যবহারকারীর সুরক্ষার বিষয়টি আমাদের কাছে বড়। এই প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে, আমরা বড় অঙ্কের ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দিয়েছি। কেবল নীতিমালা না মানার কারণে।’

করম্যাক কিনান আরও বলেন, ‘আমরা চাই টিকটকে ১৩ বছর বা তার উপরের বয়সীদের সুরক্ষিত রাখার বিষয়ে ব্যাপক গুরুত্ব আরোপ করেছি এবং এই ১৩ বছর বয়সী নয় যারা, তাদের জন্য অনেক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয়েছি।’

চীনা প্ল্যাটফর্ম টিকটক কিশোর-কিশোরীদের কাছে অনেক জনপ্রিয়। কিন্তু বর্তমানে ১৩ বছরের নিচে কাউকে অ্যাকাউন্ট খুলতে দেওয়া হচ্ছে না।

Dhaka Post

১৩ বছরের কমবয়সীদের নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন

টিকটক বুমের লেখক ক্রিস স্টোকেল-ওয়াকার বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই বলে দিয়েছি ১৩ বছরের কমবয়সীরা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবে না। যা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলো নির্দিষ্ট করে বলেনি। কিন্তু যখন এই নীতিমালা ভঙ্গ করলেন এক শ্রেণির ব্যবহারকারী তখনই আমরা বিভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছি।’

‘এক দশকে অনেকেই ভুয়া জন্মদিনের তথ্য দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলেছে। সে কারণে অনেকেই এর সমালোচনা করছেন। এখানে আমি একটি কথা বলে রাখতে চাই, টিকটক বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম। সাধারণত কিশোর-কিশোরীরাই এটি ব্যবহার করে। কিন্তু কেউ কেউ এই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করছেন নেতিবাচক কাজে।’

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরির অভিযোগে যুক্তরাজ্যে টিকটকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতেই তারা ১৩ বছরের কমবয়সীদের অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দিয়েছে।

এইচএকে/আরআর/এএ

Link copied