টফি ক্রিয়েটর্স প্ল্যাটফর্মের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩২ পিএম


টফি ক্রিয়েটর্স প্ল্যাটফর্মের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাপ টফির নতুন ফিচার ‘টফি ক্রিয়েটর্স প্ল্যাটফর্ম’ -এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছে। দেশে প্রথমবারের মতো দেশি কোনো অ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য ইউজার জেনারেটেড কনটেন্ট (ইউজিসি) প্ল্যাটফর্ম নিয়ে এসেছে টফি। 

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলালিংকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার এরিক অস এ ঘোষণা দেন। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। এছাড়া ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব আফজাল হোসেন, বিটিআরসির ভাইস-চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র, অ্যাসোসিয়েশন অফ টেলিভিশন চ্যানেল ওনারের প্রেসিডেন্ট অঞ্জন চৌধুরী, এডিটরস গিল্ডের সভাপতি মোজাম্মেল হক বাবু, বাংলালিংকের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গা দত্ত, চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
যেকোনো নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে দেশের কনটেন্ট ক্রিয়েটররা টফি ক্রিয়েটরস প্ল্যাটফর্মে নিজেদের তৈরি কনটেন্ট আপলোড করে তাৎক্ষণিকভাবে অসংখ্য ব্যবহারকারীদের সঙ্গে তা শেয়ার করতে পারবেন। পোস্ট করা কনটেন্টের রিচের ওপর ভিত্তি করে ক্রিয়েটররা উপার্জনের সুযোগও পাবেন। প্রতিভাবান দেশি কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের নিজেদের দক্ষতা প্রদর্শনে উৎসাহিত করার পাশাপাশি ডিজিটাল দুনিয়ায় বাংলাদেশি সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে টফি।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডিজিটাল দুনিয়ায় আমাদের অবস্থানকে শক্তিশালী করতে আরও বেশি সংখ্যক দেশীয় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে অনুকরণীয় ভূমিকা পালন করার জন্য টফি আমাদের আন্তরিক প্রশংসার দাবিদার। একটি দেশীয় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মও যে অসাধারণ সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম, টফির ১ কোটিরও বেশি ডাউনলোড তা প্রমাণ করে। টফি ক্রিয়েটরস প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে আমাদের কনটেন্ট ক্রিয়েটররা বার্তা পাবে যে, এখন বিদেশি প্ল্যাটফর্মের ওপর বেশি নির্ভরশীল না হয়ে তারা দেশি প্ল্যাটফর্মগুলোও বেছে নিতে পারে।

বাংলালিংকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার এরিক অস বলেন, বিস্তৃত পরিসরে মানসম্মত বিনোদনের এক অনন্য মাধ্যম হিসেবে টফি ইতোমধ্যেই সারাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ইউজিসি ফিচারটি যুক্ত করে আমরা এর পরিধি আরও বাড়িয়েছি। এর ফলে দেশি কনটেন্ট ক্রিয়েটররা আরও সহজে বেশি সংখ্যক স্থানীয় ব্যবহারকারীদের মধ্যে পৌঁছতে সক্ষম হবেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের অঙ্গীকারের অংশ হিসেবে আমরা সব সময় এ ধরনের অগ্রণী উদ্যোগ নিতে চাই।    
 
অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব আফজাল হোসেন বলেন, বছরের পর বছর আমরা বিদেশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে আসছি। টফি আমাদের নতুন উদ্ভাবন যা ডিজিটাল বাংলাদেশ অগ্রযাত্রাকে আরও বেগবান করতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।
 
বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, টফির এ ফিচার আত্মপ্রকাশ দেশীয় সংস্কৃতি বিকাশের একটি মাইলফলক।
 
অ্যাটকো সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের তরুণ সমাজের জন্য টফি মেধা বিকাশের একটি বড় সুযোগ সৃষ্টি করবে। 

এন্ড্রয়েড ও আইওএস ব্যবহারকারীরা যথাক্রমে গুগল প্লে-স্টোর ও অ্যাপ স্টোর থেকে টফি ডাউনলোড করতে পারবেন। ব্যবহারকারীদের জন্য অত্যাধুনিক বিভিন্ন সুবিধা ও মানসম্মত বিনোদনমূলক কনটেন্ট আনা অব্যাহত রাখবে বলে টফির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। 

একে/এসএম

Link copied