জেলের জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির কচ্ছপ-ডলফিন

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ভোলা 

২৪ মে ২০২২, ০৪:৫৮ পিএম


জেলের জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির কচ্ছপ-ডলফিন

ভোলার সাগর মোহনায় বিরল প্রজাতির একটি সামুদ্রিক কচ্ছপ ও ইরাবতী ডলফিন ধরা পড়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে নিঝুম দ্বীপ থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দক্ষিণের গভীর সমুদ্রে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার কুকরী-মুকরী ইউনিয়নের একটি মাছ ধরার ট্রলারের জালে এই প্রাণী দুটি ধরা পড়ে। 

ট্রালারে থাকা এনায়েত হোসেন নামে জেলে জানান, সকালে সমুদ্র থেকে ফিরে আসার সময় ট্রলারের জালে ৩০ কেজি ওজনের একটি বিরল প্রজাতির কচ্ছপ ও প্রায় ৯০ কেজি ওজনের একটি ডলফিন আটকে যায়। পরে জাল টেনে ওঠানোর সময় দুটিকেই জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হই আমরা। পরবর্তীতে আমরা ওয়ার্ল্ড ফিস বাংলাদেশের ইকোফিস-২ এর কর্মকর্তাদের জানালে তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কচ্ছপ ও ডলফিনকে সমুদ্রে অবমুক্ত করে দেই।

এ বিষয়ে ওয়ার্ল্ড ফিস বাংলাদেশের ইকোফিস-২ এর সহকারী গবেষক মোনাইম হোসাইন জানান, গভীর সমুদ্রে চরফ্যাশন উপজেলার কুকরী-মুকরী ইউনিয়নের জেলেদের জালে একটি কচ্ছপ ও একটি ডলফিন আটক হওয়ার খবর পেয়েছি। পরবর্তীতে তাদের পাঠানো ছবি ও তথ্য অনুযায়ী কচ্ছপটি ওলিভ রিডলি ও ডলফিনটি ইরাবতী প্রজাতির বলে জানতে পেরেছি। কচ্ছপটির ওজন ৩০ কেজি ও ডলফিনটি প্রায় ৯০ কেজি। পরর্বতীতে আমাদের নির্দেশনায় কচ্ছপ ও ডলফিন দুটোই  সাগরে অবমুক্ত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ইউএসএআইডির আওতায় নিঝুম দ্বীপ সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকায় আমাদের ১০ জন সিটিজেন সায়েন্টিস্ট মৎস্যসম্পদ ও সামুদ্রিক জীববৈচিত্র সংরক্ষণে কাজ করে আসছেন। এছাড়াও ইকোফিস প্রকল্পের আওতায় সামুদ্রিক জীববৈচিত্র সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব এবং করণীয় সম্পর্কে এখন পর্যন্ত ৫০০ জন সমুদ্রগামী জেলেকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। যাতে তারা জালে ধরা পড়া সামুদ্রিক কচ্ছপ, শাপলা পাতা, হাঙর ও ডলফিন রক্ষায় সচেষ্ট হন এবং এগিয়ে আসেন।

ইমতিয়াজুর রহমান/আরএআর

Link copied