কাচের দরজা ভেঙে কোরবানির গরু ঢুকে পড়ল দোকানে

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, বগুড়া

০৭ জুলাই ২০২২, ০৯:৫৩ পিএম


কাচের দরজা ভেঙে কোরবানির গরু ঢুকে পড়ল দোকানে

বগুড়ায় একটি কোরবানির গরু কাচের দরজা ভেঙে দোকানে ঢুকে তাণ্ডব তালিয়েছে। তবে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন দোকানে থাকা দুই নারী। গতকাল (৬ জুলাই) সন্ধ্যায় বগুড়া শহরের ধরমপুর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

গরুর কারণে তছনছ হওয়া ওই দোকানের নাম জাফরিন কালেকশন। ধরমপুর এলাকার রত্না খাতুন ও তার স্বামী রিন্টু মিয়া মিলে দোকানটি পরিচালনা করেন। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিজের দোকানে ব্যবসার কাজে ব্যস্ত ছিলেন রত্না খাতুন। হঠাৎ বিকট শব্দে কাচের দরজা ভেঙে বড় একটি ষাঁড় গরু ভেতরে ঢুকে পড়ে। গরুর লাফালাফিতে মুহূর্তেই তছনছ হয় দোকান। এ সময় দোকান মালিক ও তার কর্মচারী আহত হন। 

কোরবানির জন্য ক্রয় করা ওই গরুটির মালিকের নাম মনছুর রহমান। তিনিও ধরমপুর এলাকার বাসিন্দা।

আহত রত্না খাতুন বলেন, সন্ধ্যায় দোকানে কাজ করছিলাম। দোকানের কর্মচারী সীমা আমার জন্য এক কাপ চা নিয়ে আসে। এর পরপরই ওই গরুটি কাচের দরজা ভেঙে ভেতরে চলে আসে। একপর্যায়ে লাফ দিয়ে শো-কেসের ওপর উঠে সেটিও ভেঙে ফেলে। এ সময় গরুটির লাফালাফিতে আমি ও সীমা আঘাত পাই। পরে গরুটি একটু শান্ত হলে আমরা দোকানের বাইরে চলে আসি। এ সময় অন্যান্য লোকজন এসে গরুটিকে বের করে মনছুরের বাসায় নিয়ে যায়। 

দোকানের মালিক রিন্টু মিয়া বলেন, মহাস্থান হাট থেকে বুধবার সন্ধ্যায় মনছুর একটি গরু কিনে ভটভটিতে করে বাড়িতে নিয়ে আসেন। ভটভটি থেকে নামানোর সময় হঠাৎ গরুটির দড়ি ফসকে যায়। এ সময় ওই গরু ভয় পেয়ে এদিক-সেদিক ছোটাছুটির একপর্যায়ে আমাদের দোকানের ভেতর ঢুকে পড়ে। ওই সময় দোকানে আমার স্ত্রী রত্না ও সীমা নামে এক নারী কর্মচারী ছিল। তাদের চিৎকারে ভেতরে গিয়ে দেখি গরুটি দোকানের সব কিছু ভেঙে ফেলেছে। এ ঘটনায় আমাদের দোকানের প্রায় ৪৫ হাজার টাকার মতো জিনিসপত্র নষ্ট হয়েছে। কিন্তু  এটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। 

আরএআর

Link copied