প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান, স্কুলছাত্রীকে থানায় নিল পুলিশ

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

২৯ জুলাই ২০২২, ০৯:২৮ পিএম


প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান, স্কুলছাত্রীকে থানায় নিল পুলিশ

রংপুরের বদরগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে চার দিন ধরে অবস্থান নেওয়া নবম শ্রেণিপড়ুয়া কিশোরীকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেল ৪টায় উপজেলার লোহানিপাড়া ইউনিয়নের মাদাই খামার জেলেপাড়া থেকে বদরগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বদরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিয়ের দাবিতে অবস্থানে বসা শিক্ষার্থীকে শুক্রবার বিকেলে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া উভয় পক্ষের পরিবারের লোকজনকে থানায় ডাকা হয়েছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বেলে জানান ওসি।

এ ব্যাপারে অবস্থানে বসা কিশোরী প্রেমিকা বলে, সাগর বিশ্বাসের সঙ্গে আমার সাড়ে তিন বছরের প্রেমের সম্পর্ক। এর মধ্যে আমরা স্বামী-স্ত্রীর মতো মেলামেশা করেছি। কিন্তু ২৬ জুলাই সকালে সাগর আমাকে ছেড়ে দিনাজপুরের ফুলবাড়ি থানার বেলঘাটা ইউনিয়নে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করতে যায়। এটা শুনে আমি তাদের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছি। 

কিশোরী আরও বলে, শুক্রবার বিকেলে এসে পুলিশ আমার জবানবন্দি নিয়ে আমাকে থানায় নিয়ে যায়। থানায় নিয়ে যদি আমার বিয়ের বন্দোবস্ত করা না হয়, তাহলে আমি আবারও সাগর বিশ্বাসের বাড়িতে গিয়ে অবস্থানে বসব।

আরও পড়ুন : বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে স্কুলছাত্রী

স্থানীয় সাবেক জনপ্রতিনিধি আইয়ুব আলী জান্তু জানান, গত ২৬ জুলাই মেয়েটি সাগর বিশ্বাস নামের যুবকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে। কিন্তু এ ঘটনার তিন দিন আগে অন্য এক মেয়ের সঙ্গে সাগরের আশীর্বাদ হয়। যৌতুক বাবদ ১ লাখ ৪০ হাজার এবং স্বর্ণালংকার বাবদ ৫০ হাজার টাকা সাগর বিশ্বাসের বাবাকে বুঝিয়ে দেয় মেয়েপক্ষ। এরই মধ্যে নবম শ্রেণি পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থী বিয়ের দাবিতে সাগরের বাড়িতে অবস্থান নেয়।

এ খবর জানতে পেরে সাগর বিশ্বাসকে নতুন বিয়ে ঠিক হওয়া তরুণীর পরিবার আটকে রাখে। পরে স্থানীয়ভাবে ২৮ জুলাই বৈঠকে বসে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ওই মেয়ের পক্ষকে দেওয়ার শর্তে ছেলেকে সেখান থেকে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত হয়।

তবে সময়মতো টাকা দিতে না পারায় তারা সাগরকে ছাড়েনি। বরং দেরি হওয়ায় তারা ১০ লাখ টাকা দাবি করেছে। বিষয়টি নিয়ে এখন এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে বলেও জানান সাবেক ওই জনপ্রতিনিধি।

এ ঘটনায় মেয়েপক্ষ ও ছেলেপক্ষ উভয়ই থানায় অভিযোগ করেছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে অবস্থানে বসা শিক্ষার্থীসহ উভয় পক্ষকে থানায় ডেকে নিয়ে গেছে পুলিশ বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এর আগে মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) বিকেল ৫টায় বদরগঞ্জের লোহানিপাড়া ইউনিয়নের মাদাই খামারের জেলেপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। অবস্থান নেওয়া ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জে। তার বাবা একজন কৃষক।

ফরহাদুজ্জামান ফারুক/এনএ

Link copied