বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে যুবদল কর্মী নিহত

নারায়ণগঞ্জে রিজভীর মামলার আবেদন খারিজ

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:০৫ পিএম


নারায়ণগঞ্জে রিজভীর মামলার আবেদন খারিজ

নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে যুবদল কর্মী শাওন প্রধান নিহতের ঘটনায় পুলিশ সুপারসহ ৪২ জন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর করা মামলার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান মোল্লার আদালত এ আদেশ দেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট একেএম ওমর ফারুক নয়ন জানান, বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বাদী হয়ে এ মামলার আবেদন করেছিলেন। আদালত ২০৩ ধারায় মামলাটি খারিজ করেছেন। ওই মামলায় পুলিশের ৪২ সদস্যের নাম উল্লেখ করে বিবাদী করা হয়।

বিবাদীরা হলেন ক্রমান্বয়ে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান, পুলিশ সুপার (এসপি) গোলাম মোস্তফা রাসেল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক অঞ্চল) নাজমুল হাসান, সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) তারিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) আমীর খসরু, পুলিশের কনস্টেবল শাহরুল আলম, সোহাগ, আরিফ দেওয়ান, ফেরদৌস দেওয়ান, সেলিম, রিপন, যুগল, মামুন, রিয়াজ, হাফিজ, সহকারী উপ-পরিদর্শক ইকবাল হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, পুলিশের কনস্টেবল জাকির হোসেন, নাঈম, রাকিব, আনিস, সাইদুল, এএসআই সোহরাব, পুলিশ সদস্য ইনজামামুল, রাসেল, খলিলুর রহমান, মোহসিন, মোস্তাকিম, শাহাদাৎ, ফখরুল, আরিফ দেওয়ান, দীপক সাহা, শাহীন, ফরিদ উদ্দিন, মুরাদুজ্জামান, শাহীন, কবির হোসেন, মান্নান, রুবেল, সোহাগসহ অজ্ঞাতনামা ১৫০ জন।

এর আগে সকালে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান মোল্লার আদালতে বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী বাদী হয়ে ওই মামলার আবেদন করেন। এ সময় বিএনপির একাধিক আইনজীবী তার সঙ্গে ছিলেন। পরে বেলা ১১টার দিকে আদালত প্রাঙ্গণ ত্যাগ করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন রিজভী।

বিএনপির আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ উদ্দিন তালুকদার বলেন, আমরা আশায় ছিলাম আদালত মামলা গ্রহণ করে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করবে। কিন্তু তারা মামলা গ্রহণ না করে তা খারিজ করেছেন, যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সড়কে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। টানা পৌনে দুই ঘণ্টা চলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। ভাঙচুর করা হয় শহরের দুই নং রেল গেটের পুলিশ বক্স। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায়। এ সময় শাওন প্রধান নামে এক যুবদল কর্মী নিহত হন। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় নিহত শাওনের বড় ভাই বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

আরএআর

Link copied