এমপি নয়নের সমর্থকদের দখলে সম্মেলনস্থল

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর

২২ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪২ এএম


লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগের সম্মেলনে যোগ দিতে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সকাল ৭-৮টা পর্যন্ত এক ঘণ্টায় সম্মেলনস্থলের চেয়ারগুলো ভর্তি হয়ে যায়। উপস্থিত প্রত্যেকের গায়েই সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপির ছবি সংবলিত কমলা রঙের গেঞ্জি দেখা গেছে। তবে অন্য প্রার্থীর নেতাকর্মীরাও জেলা স্টেডিয়াম মাঠে আসতে শুরু করেছেন।

এর আগে সোমবার রাতে কয়েক হাজার নেতাকর্মী সম্মেলনে যোগ দিতে শহরে অবস্থান নিয়েছিল। ভোর হতেই তারা ছোট ছোট মিছিল নিয়ে সম্মেলনস্থলে পৌঁছায়। 

এদিকে সদর (পশ্চিম) উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক তাফাজ্জল হোসেন চৌধুরী টিটু, যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহবুবুল হক মাহাবুব ও সদর (পূর্ব) উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আমির হোসেনের নেতৃত্বে একটি মিছিল সম্মেলনস্থলে আসতে দেখা যায়। এ সময় সবার পরনে এমপি নয়নের ছবি সংবলিত গেঞ্জি থাকলেও তাদের মুখে স্লোগান ছিল ভিন্ন। জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আবু তাহেরকে নিয়ে স্লোগান ভেসে আসে। মিছিলে জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি তাহেরপুত্র একেএম সালাহ উদ্দিন টিপুও উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছ, গেল সম্মেলনেও সাবেক মেয়র আবু তাহের আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু এবার তার কোনো প্রচারণা নেই। প্রার্থিতার দৌড়েই তিনি সামিল হননি। তার ছেলেরা এমপি নয়নের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। 

দলীয় সূত্রে জানা যায়, সবশেষ ২০১৫ সালের ৩ মার্চ জেলা স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় ৭ বছর ৮ মাস পর মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সকাল ১০টার দিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, বিশেষ অতিথি মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, প্রধান বক্তা যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। 

দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সভাপতি প্রার্থী হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, জেলা কমিটির সহ-সভাপতি সফিকুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান আলোচনার শীর্ষে রয়েছে। সাধারণ সম্পাদক পদে নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, জেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোজাম্মেল হক মিলন, নুরুল হুদা পাটওয়ারী রয়েছেন। এছাড়া সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নিয়ম রক্ষার আরও বেশ কিছু প্রার্থী রয়েছেন। নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল বলেন, সকাল ৭টার দিকে মাঠের গেট খোলা হয়। এক ঘণ্টাতেই নেতাকর্মীদের বসার স্থান পরিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। সুশৃঙ্খলভাবে সম্মেলন সফল করতে আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে।

হাসান মাহমুদ শাকিল/এসপি 

Link copied