আগামী ৬ তারিখের মধ্যে আমাকে হত্যা করা হবে : কাদের মির্জা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নোয়াখালী 

০৩ মে ২০২১, ১৮:০৬


আগামী ৬ তারিখের মধ্যে আমাকে হত্যা করা হবে : কাদের মির্জা

মেয়র আবদুল কাদের মির্জা

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, আমাকে ও আমার সন্তানকে হত্যার জন্য তিনটি একে-৪৭ পাঠানো হয়েছে। আগামী ৬ তারিখের মধ্যে আমাকে ও আমার সন্তানকে হত্যা করা হবে। 

সোমবার (৩ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে নিজের ফেসবুক আইডিকে এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার পর তিনি ঢাকা পোস্টকে এসব কথা বলেন।  

ফেসবুক স্ট্যাটাসে কাদের মির্জা লিখেছেন, একরামুল করিম চৌধুরী দুবাই অবস্থান করে আমি ও আমার সন্তানকে আগামী ৬ তারিখের মধ্যে হত্যা করবে। ইতোমধ্যে এই হত্যার মিশন বাস্তবায়ন করার জন্য তিনটি একে-৪৭ ক্রয় করা হয়েছে। আমি সত্যের পথে আছি থাকবো, সাহস করে সত্য কথা বলে যাবো । আল্লাহ ছাড়া আমি কাউকে ভয় করি না, আমি অন্যায়ের কাছে মাথা নত করবো না। 

এ বিষয়ে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমি খবর পেয়েছি চট্টগ্রামের আ জ ম নাসির ফেনীতে আমাকে ও আমার সন্তানকে হত্যার জন্য তিনটি একে-৪৭ পাঠাইসে। সেখানকার নিজাম হাজারী ও স্বপন মিয়াজি তা রিসিভ করে মিজানুর রহমান বাদল, আজম পাশা চৌধুরী রুমেল ও ফখরুল ইসলাম রাহাতের কাছে দিয়েছে। একরামুল করিম চৌধুরী দুবাই থাকাকালীন তাদের এ মিশন বাস্তবায়ন করবে।

তিনি আরও বলেন, আসলে আমার আল্লাহ ছাড়া কেউ নেই। আমি অনেক জায়গায় বিচার দিয়েছি কোথাও এর বিচার পাইনি। আজকে ওবায়দুল কাদের সাহেব আমার সঙ্গে নেই। তার স্ত্রীর অপকর্ম ঢাকার জন্য আগামী ৬ তারিখের মধ্যে আমাকে ও আমার সন্তানকে হত্যা করা হবে।

এদিকে নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী বর্তমানে দুবাই অবস্থান করায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। ওই পৌরসভায় দ্বিতীয় মেয়াদে গত ডিসেম্বরে নির্বাচনের আগে বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বলে আলোচনায় আসেন তিনি।

স্থানীয় রাজনীতির বিভিন্ন ইস্যুতে দলীয় প্রতিপক্ষের সঙ্গে তার বিরোধের ঘটনায় এক মাসে দুটি সংঘর্ষে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। এসব ঘটনায় একাধিক মামলা করা হয়েছে।

গত ৩১ মার্চ নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আবদুল কাদের মির্জা দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও তিনি আর জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচন করবেন না বলেও ঘোষণা দেন।

হাসিব আল আমিন/আরএআর

Link copied