আড়ানীর মেয়র মুক্তার সাময়িক বরখাস্ত

Dhaka Post Desk

 নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

১২ জুলাই ২০২১, ১০:০৯ পিএম


আড়ানীর মেয়র মুক্তার সাময়িক বরখাস্ত

আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলী

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অস্ত্র ও মাদক মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর সোমবার (১২ জুলাই) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় তাকে সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করে।

মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের পৌর-২ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ ফারুক হোসেন স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলীর বিরুদ্ধে বাঘা থানায় মামলা হয়েছে। এটি স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন অনুযায়ী মেয়র পদ থেকে তাকে অপসারণযোগ্য অপরাধ। এমন অপরাধমূলক কার্যক্রম পৌর পরিষদসহ জনস্বার্থের পরিপন্থী বলে সরকার মনে করে। তাই তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। জনস্বার্থে জারি করা এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকরের কথাও উল্লেখ রয়েছে প্রজ্ঞাপনে।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ৬ জুলাই রাত ৯টার দিকে পৌর এলাকার জয়বাংলা মোড়ে কলেজশিক্ষক মনোয়ার হোসেন মজনুর বাড়িতে হামলা চালান মেয়র মুক্তার আলী ও তার লোকজন। এতে স্ত্রী ও সন্তানসহ আহত হন ওই শিক্ষক। ওইদিন রাতেই বাঘা থানায় মেয়রকে প্রধান আসামি করে অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী শিক্ষক। অভিযোগ পেয়ে পরে পৌর মেয়রকে গ্রেফতারে তার পিয়াদাপাড়া এলাকার বাড়িতে অভিযান চালায় বাঘা থানা পুলিশ। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যান মেয়র মুক্তার আলী। 

পরে তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে নগদ ৯৪ লাখ ৯৮ হাজার টাকা, মেয়রের স্বাক্ষর করা ১৮ লাখ টাকার দুটি চেক, চারটি ম্যাগাজিন ও ১৭ রাউন্ড গুলিসহ বিদেশি পিস্তল, পিস্তলের গুলির ৪টি খোসা, ওয়ান শুটার গান, দেশি বন্দুক, এয়ার রাইফেল এবং শর্টগানের ২৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। অভিযানে ১০ গ্রাম গাঁজা, ৭ পুরিয়া হেরোইন ও ২০ পিস ইয়াবাও পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় ওইদিনই গ্রেফতার হন মেয়রের স্ত্রী জেসমিন আক্তার (৪০) এবং দুই ভাতিজা সোহান (২৫) ও শান্ত (২৩)। তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে মেয়র মুক্তার আলীকে।

তিনদিন পর গত ৯ জুলাই ভোর ৫টার দিকে পাবনার ঈশ্বরদী থানার পাকশী এলাকার এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে শ্যালকসহ মেয়র মুক্তার আলীকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। ওইদিনই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে চারদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। 

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) তাকে আদালতে তোলার কথা জানিয়েছেন জেলা পুলিশের মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম। 

ফেরদৌস সিদ্দিকী/আরএআর

Link copied