চিরকুট লিখে রাতের আঁধারে দরজায় টাকা রেখে ক্ষমা প্রার্থনা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি

কুড়িগ্রাম

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ এএম


চিরকুট লিখে রাতের আঁধারে দরজায় টাকা রেখে ক্ষমা প্রার্থনা

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় চিরকুট লিখে রাতের আধারে ঘরের দরজায় টাকা রেখে গেছেন অজ্ঞাত ব্যক্তি। এ ঘটনা ঘটেছে শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে নাগেশ্বরী পৌরসভার সুখাতী ভাটিয়াটারী গ্রামে। 

ওই গ্রামের আমিনুর রহমানের ছেলে হাসানুর রহমান জানান, রাতের খাওয়া শেষে রাত সাড়ে ৮টায় ঘরের দরজা দিয়ে শুয়ে পড়েন তিনি। তখনো ঘুম আসেনি, নিভিয়ে দেননি আলো। ততক্ষণে বেজে গেছে রাত প্রায় ৯টা। হঠাৎ মানুষের পায়ের শব্দ শুনে তিনি দরজা খুলে বের হন।

দেখেন কেউ একজন তার বাড়ি থেকে দ্রুত বেরিয়ে যাচ্ছেন। পিছু পিছু গেলে লোকটা চোখের আড়ালে গা ঢাকা দেন। ফিরে এসে দরজা বন্ধ করতে গিয়ে আমিনুর দেখেন ঘরের সামনে পড়ে আছে একটা ১০০ টাকার নোট। টাকা সঙ্গে একটি চিরকুট। তাতে লেখা আছে, ‘এই টাকাটা ক্ষতি করেছি নিয়ে মাফ করে দেবেন।’ 

একইভাবে একই এলাকার আবু বকরের ছেলে আব্দুল বারেকের ঘরের দরজায় ১০ টাকা, ইসমাইলের ছেলে আব্দুস সাত্তারের ঘরের দরজায় ৫০ টাকা, মৃত শমসের আলীর ছেলে সাইদুরের ঘরের দরজায় ৩০ টাকা, ছফর আলীর ছেলে মজনু মিয়ার ঘরের দরজায় ১০০ টাকা রেখে গেছেন অজানা ব্যক্তি। 

ক্ষমা চাওয়ার এমন নজির বিরল। তাই মুহূর্তেই এ খবর লোকমুখে এলাকায় ছড়িয়ে পরে। এটি নিছক রসিকতা নাকি ক্ষমাপ্রার্থনা তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে এলাকায়।

৫ নং ওয়ার্ড কমিশনার রুহুল আমিন বলেন, গ্রামটি আমার নির্বাচনী এলাকার অন্তর্ভুক্ত। বিষয়টি আমার কানেও এসেছে। কে, কেন একাজ করেছে তা এখনও জানতে পারিনি। 

মো. জুয়েল রানা/এইচকে 

Link copied