নিখোঁজ শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ টেনে তুলল কুকুর

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, মুন্সিগঞ্জ

১৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:১২ পিএম


নিখোঁজ শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ টেনে তুলল কুকুর

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে নিখোঁজের ১৮ ঘণ্টা পর হুমায়রা হিমু (১০) নামে এক শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে উপজেলা কনকসার কাহেতারা এলাকায় বাড়ির পাশের ডোবা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। 

নিহত হুমায়রা হিমু  ওই এলাকার মো. হানিফ হোসেনের মেয়ে। এর আগে বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে হিমু নিখোঁজ ছিল বলে তার পরিবার জানিয়েছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় হুমায়রা হিমু। পরে অনেক খোঁজ করেও না পেয়ে রাতে এ বিষয়ে লৌহজং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা হানিফ। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে বাড়ির পাশের ডোবার পাশে একটি অর্ধ ভাসমান বস্তা কুকুরকে টানতে দেখে সন্দেহ হলে বস্তাটি খুলে হিমুর মরদেহ পাওয়া যায়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত হুমায়রা হিমুর বাবা হানিফ হোসেন জানান, বুধবার দুপুর থেকে আমার মেয়ে নিখোঁজ ছিল। সম্ভাব্য সব জায়গায় আমরা খোঁজাখুঁজি করি। গ্রামের প্রতিটা মসজিদে মাইকিং করি। কোথাও খুঁজে পাইনি। মেয়ে নিখোঁজের সংবাদে দিশেহারা হয়ে যাই। কোথাও পায়নি আজকে সকালে আমার মেয়ের লাশ বস্তাবন্দি অবস্থায় পেলাম। আমার ছোট মেয়েটিকে এভাবে হত্যা করে বস্তায় ভরা হলো। আমাদের তো কারো সঙ্গে কোনো শত্রুতা নেই। কী দোষ ছিল মেয়েটির। যারা আমার মেয়েকে এভাবে মারল তাদের বিচার চাই। 

লৌহজং থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) রাজু মিয়া জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মেয়েটি গতকাল থেকে নিখোঁজ ছিল। তবে প্রকৃত ঘটনা কী তা মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে ও তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। 

ব.ম শামীম/আরএআর

Link copied