চুয়াডাঙ্গায় ‘বিজিবির সোর্স’কে গুলি করে হত্যা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, চুয়াডাঙ্গা

২৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:২৩ এএম


চুয়াডাঙ্গায় ‘বিজিবির সোর্স’কে গুলি করে হত্যা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার নাস্তিপুরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে হযরত আলী (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) রাতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে পৌনে ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

নিহত হযরত আলী দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের নাস্তিপুর গ্রামের পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা।

বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএইচএম লুৎফুল কবীর।

নিহত ব্যক্তির ছেলে তৌফিক হোসেনের দাবি, তার বাবা হযরত আলী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সোর্স হিসেবে কাজ করতেন। সীমান্ত এলাকার চোরাকারবারিরা তার বাবাকে হত্যা করেছে।

তৌফিক আরও বলেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিকট শব্দে আমার ঘুম ভেঙে যায়। পরে পাশের কক্ষে আমার বাবার গোঙানি শুনতে পেয়ে সেখানে গিয়ে দেখি তার মাথা থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। বাবাকে দ্রুত উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের ভর্তি করি। রাত পৌনে ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ঘরের জানালা খোলা থাকায় সেখান দিয়ে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। 

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সোহরাব হোসেন বলেন, রাত ১টা ২০ মিনিটের দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আনা হয় ওই ব্যক্তিকে। তার মাথায় গুলি করা হয়েছে। রাত পৌনে ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত ঘোষণা করা হয়।

দর্শনা থানার ওসি এএইচএম লুৎফুল কবীর বলেন, ঘুমন্ত অবস্থায় ঘরের জানালা দিয়ে হয়রত আলীকে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে এসেছি। তিনি বিজিবি-৬ এর সোর্স ছিলেন। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

আফজালুল হক/এসকেডি

Link copied