আজকের সর্বশেষ

করোনায় কোনো পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়নি

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১১ এপ্রিল ২০২১, ১৮:৫৬

করোনায় কোনো পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়নি

দ্বিতীয় ঢেউয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬২ জন পোশাক শ্রমিক। এ পর্যন্ত মোট ৭০৯ জন শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম মহিউদ্দিন।

রোববার (১১ এপ্রিল) লকডাউন চলাকালে কারখানা খোলার বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনটি রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

শফিকুল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, দ্বিতীয় দফায় পোশাক খাতে এপ্রিলে ৪০০ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬২ জনের করোনা ধরা পড়েছে।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত পাঁচ হাজার পোশাক শ্রমিকের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে পরীক্ষায় ৭০৯ জনের করোনা ধরা পড়েছে। তাদের মধ্যে ৮২ শতাংশ পুরুষ আর মাত্র ১৮ শতাংশ নারী।

তিনি জানান, ৭০৯ জনের মধ্যে এখন সুস্থ হয়ে কারখানায় কাজ শুরু করেছেন ৬০০ জন। বাকিরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে পোশাক শ্রমিকদের বেশির ভাগই কর্মক্ষম হওয়ার ফলে আক্রান্তদের মধ্যে কারও মৃত্যু হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পোশাক কারখানায় প্রত্যেক শ্রমিক স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে কাজ করছেন। সেদিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে। বিজিএমইএর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুস সালাম বলেন, মহামারির সময় সংক্রমণের সম্ভাব্য তীব্রতা ও ভয়াবহতার বিষয়টি আঁচ করে শুরু থেকেই পরিস্থিতি মোকাবিলায় কর্মপন্থা নির্ধারণ করি। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মানছে কি না দেখভালের জন্য দশটি টিম গঠন করি। তারা সবসময় তদারকি করেন। ঢাকা ও চট্টগ্রামে পিসিআর ল্যাব তৈরি করা হয়েছে যাতে এখন দিনে ২০০টি নমুনা পরীক্ষা করা যায়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিকেএমইএর সভাপতি সেলিম ওসমান, এফবিসিসিআইএয়ের সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ, বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি ও ইএবির সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শিদী, বিজিএমইএর নব-নির্বাচিত সভাপতি ফারুক হাসান, বিকেএমইএর প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বিটিএমএ সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, বিজিএমইএর সিনিয়র সহ-সভাপতি ফয়সাল সামাদ, সহ-সভাপতি এম এ রহিম ফিরোজসহ তৈরি পোশাক শিল্প উদ্যোক্তারা।   

এমআই/আরএইচ

Link copied