এবার বাজার সৃষ্টিকারীর সনদ চায় সাকিবের মোনার্ক

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১২ পিএম


এবার বাজার সৃষ্টিকারীর সনদ চায় সাকিবের মোনার্ক

ব্রোকারেজ হাউজের পর এবার পুঁজিবাজারকে সাপোর্ট দিতে মার্কেট মেকার অর্থাৎ বাজার সৃষ্টিকারী হিসেবে নিবন্ধন সনদ চেয়েছে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের প্রতিষ্ঠান মোনার্ক হোল্ডিংস লিমিটেড।

এ লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আবেদন করেছে। ডিএসই কর্তৃপক্ষ আবেদনের প্রস্তাবটি যাচাই-বাছাই করে সনদ দেওয়ার সুপারিশ করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে।

রোববার বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন, বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম। তিনি বলেন, মোনার্ক হোল্ডিংসের মার্কেট মেকারের প্রস্তাবটি ডিএসই আমাদের কাছে পাঠিয়েছে। এটি আন্ডার প্রসেসে আছে। মোনার্ক হোল্ডিংস যদি মার্কেট মেকারের সব যোগ্যতা পূরণ করে, তাদের সিআইভি রিপোর্ট ঠিক থাকে, তবেই সনদ দেওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।  

ডিএসই সূত্র জানায়, দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই-সিএসই) সদস্যভুক্ত ব্রোকারেজ হাউজ বা ট্রেকহোল্ডার মোনার্ক হোল্ডিংস লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান সাকিব আল হাসান। আর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হলেন পুঁজিবাজারে আলোচিত বিনিয়োগকারী আবুল খায়ের হিরুর স্ত্রী কাজী সাদিয়া হাসান। চলতি বছর ৮ মে প্রতিষ্ঠানটি ডিএসইর কাছে মার্কেট মেকারের নিবন্ধনের জন‌্য আবেদন করে।

সেই আবেদনটি যাচাই-বাছাই করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর ডিএসইর ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সাইফুর রহমান মজুমদার বিএসইসির কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন।  প্রতিষ্ঠানটি  বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (মার্কেট মেকার) বিধিমালা, ২০১৭ এর শর্ত পূরণ করেছে কি না, তা দেখেছে ডিএসই।  

সার্বিক দিক বিবেচনায় প্রতিষ্ঠানটির মার্কেট মেকার হিসেবে কাজ করার সক্ষমতা রয়েছে বলে মনে করে ডিএসই। তাই প্রতিষ্ঠানটির মার্কেট মেকারের আবেদন বিবেচনা করার জন্য সম্মতিপত্র দিয়েছে বিএসইসিকে।

মার্কেট মেকার কী

মার্কেট মেকার বলতে এমন একটি কোম্পানি বা ব্যক্তিকে বোঝায়, যারা একটি পুঁজিবাজার তৈরি করে। তারা কোনো একটি শেয়ারের মজুত রাখে এবং সব সময় তাদের কাছ থেকে একটি নির্দিষ্ট দামে শেয়ারটি কেনা যায়  এবং তাদের কাছে একটি নির্দিষ্ট দামে শেয়ারটি বিক্রি করা যায়। এর ফলে পুঁজিবাজারে তারল্য তৈরি হয়। পুঁজিবাজারের গভীরতা বাড়াতে মার্কেট মেকারের আইন করে বিএসইসি।

দেশের ইতিহাসে প্রথমবার মার্কেট মেকার হিসেবে নিবন্ধন সনদ পায় ডিএসই ও সিএসইর (চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ) সদস্যভুক্ত ব্রোকারেজ হাউস বি রিচ লিমিটেড। এরপর লাইসেন্স পায় গ্রিনডেল্টা সিকিউরিটিজ।

কারা হতে পারবে মার্কেট মেকার

নিয়ম অনুসারে, কোনো মার্চেন্ট ব্যাংক, তফসিলি ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান, স্টক ডিলার বা স্টক ব্রোকার বিএসইসি থেকে মার্কেট মেকারের সনদ পাওয়ার যোগ্য হবে। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বাজার সৃষ্টিকারী) বিধিমালা অনুযায়ী, মার্কেট মেকার হওয়ার জন্য স্টক এক্সচেঞ্জের অনুমোদন সাপেক্ষে বিএসইসির কাছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান আবেদন করবে।

একই সঙ্গে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন কমপক্ষে ১০ কোটি টাকা থাকতে হবে। আর উল্লিখিত পরিমাণ টাকা পরিশোধিত মূলধন হিসেবে থাকলে যেকোনো মার্কেট মেকার একটি অনুমোদিত সিকিউরিটিজ পরিচালনার জন্য নিয়োজিত থাকতে পারবে।

এমআই/ আরএইচ

Link copied