ন্যাটো সম্মেলনের ক্যাফেতে রুশ সালাদ, বিক্রিও হলো আগেই

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৯ জুন ২০২২, ১১:৩১ এএম


ন্যাটো সম্মেলনের ক্যাফেতে রুশ সালাদ, বিক্রিও হলো আগেই

স্পেনের রাজধানী শহর মাদ্রিদের উপকণ্ঠে চলছে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর শীর্ষ সম্মেলন। মঙ্গলবার (২৮ জুন) শুরু হওয়া তিনদিনের এই সম্মেলন চলবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। ইউক্রেনে রাশিয়ার চলমান আগ্রাসন এবং এ সংক্রান্ত বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হতে পারে এই সম্মেলনে।

তবে সবকিছু ছাপিয়ে ন্যাটো সম্মেলনের প্রথম দিনে ‘ভাইরাল হয়েছে’ রাশিয়ার সালাদ। মাদ্রিদের উপকণ্ঠে ভেন্যু হিসেবে যে ক্যাফেতে ন্যাটো সম্মেলন আয়োজন করা হয়েছে, সেখানে খাবারের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে এই খাবারটি। বিক্রিও হয়েছে বেশ আগেই। বুধবার (২৯ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ন্যাটোর মতো রুশ-বিরোধী সামরিক জোটের সম্মেলন যে ক্যাফেতে আয়োজন করা হয়েছে, সেখানে খাবারের তালিকায় রাশিয়ার সালাদের সবার ওপরে থাকার বিষয়টি আন্তর্জাতিক কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের কার্যত হতবুদ্ধি করে দিয়েছে। এমনকি সৃষ্টি হয় হাস্যরসও।

রয়টার্স বলছে, মঙ্গলবার মাদ্রিদে আয়োজিত ন্যাটো সম্মেলনের ভেন্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ অন্য নেতাদের পৌঁছানোর অপেক্ষায় ছিলেন কর্মকর্তা-সাংবাদিকরা। অপেক্ষার একপর্যায়ে তারা ভেন্যু হিসেবে নির্ধারিত ওই ক্যাফের খাবারের মেনুতে ‘রাশিয়ান সালাদ’ দেখতে পান। আর সেটিও রয়েছে তালিকায় সবার শীর্ষে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মটর, আলু, গাজর এবং মেয়োনিজের মতো বিভিন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি করা রাশিয়ান এই সালাদ স্প্যানিশ ওই রেস্তোরাঁর মেনুতে শীর্ষে রয়েছে।

তবে ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক আগ্রাসন এবং চলমান বাস্তবতায় পশ্চিমা সামরিক জোটটি কৌশলগত নিরাপত্তা হুমকি হিসাবে এই সম্মেলনে রাশিয়াকে চিহ্নিত করবে আশা করা হচ্ছে। আর এমন একটি সম্মেলনের আয়োজনস্থলের খাবারের তালিকায় রুশ খাবার দেখে হতাশার সৃষ্টি হয়।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম লা সেক্সতার সাংবাদিক ইনাকি লোপেজ বলেন, ‘ন্যাটো সম্মেলনে রাশিয়ান সালাদ? মেনুতে এই খাবারটি দেখে আমি একটু অবাকই হয়েছি।’

তবে ন্যাটোর এই সম্মেলনটি রাশিয়া-বিরোধী সম্মেলন হলে কি হবে, রুশ এই খাবারটি নিয়ে সেখানে আগ্রহের কমতি ছিল না এবং মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তা পুরোপুরি বিক্রিও হয়ে যায় বলে জানা গেছে। স্প্যানিশ শেফ জোসে আন্দ্রেস এই খাবারটি তৈরি করেছিলেন।

টিএম

Link copied