কমানোর ঘোষণার পর পেট্রোলের দাম বাড়ল পাকিস্তানে

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৬ আগস্ট ২০২২, ০৮:২০ পিএম


কমানোর ঘোষণার পর পেট্রোলের দাম বাড়ল পাকিস্তানে

গত ১২ আগস্ট দেশে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমানোর ঘোষণা দিয়েছিল পাকিস্তানের জ্বালানি বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা অয়েল অ্যান্ড গ্যাস রেগুলেটরি অথরিটি (ওগরা)। ১৬ আগস্ট থেকে কার্যকর হওয়ার কথা ছিল এই হ্রাসকৃত মূল্য।

কিন্তু এই দিন মূল্য হ্রাসের পরিবর্তে বরং পেট্রোলের দাম লিটারপ্রতি ৬ দশমিক ৭২ রুপি বাড়িয়ে দিয়েছে দেশটির সরকার। ডিজেলের দাম অবশ্য কমেছে, তবে তা ও খুবই নগন্য— প্রতি লিটারে মাত্র ৫১ পয়সা।

মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়, লিটারে ৬ দশমিক ৭২ রুপি বৃদ্ধির ফলে এখন থেকে পাকিস্তানে প্রতি লিটার পেট্রোল ২২৭.১৯ রুপির পরিবর্তে ২৩৩ দশমিক ৯১ রুপিতে বিক্রি হবে।

আর ডিজেলের দাম লিটারে ৫১ পয়সা কমানোয় এখন থেকে পাকিস্তানে প্রতি লিটার ডিজেল ২৪৪ দশমিক ৯৫ রুপির পরিবর্তে বিক্রি হবে ২৪৪ দশমিক ৪৪ রুপিতে।

পরিবর্তিত এই মূল্য ১৬ আগস্ট থেকে কার্যকর হবে উল্লেখ করে পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে পেট্রোলিয়ামের দামের ওঠানামা ও ডলারের বিপরীতে রুপির মান টানা কমতে থাকায় সরকার জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভোক্তাদের কাছ থেকে এ বিষয়ে সহযোগিতা প্রত্যাশা করা হচ্ছে।'

এর আগে গত ১২ আগস্ট পাকিস্তানের জ্বালানি বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা ওগরার এক কর্মকর্তা দেশটির সংবাদমাধ্যম জিইও টিভিকে জানিয়েছিলেন, প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম ১৫ রুপি ও ডিজেলের দাম ১২ রুপি কমানোর প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে সংস্থা; এবং আশা করা হচ্ছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের যাচাই ও প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পর ১৬ আগস্ট থেকেই কার্যকর হবে হ্রাসকৃত মূল্য।

আরও পড়ৃন : চলতি মাসেই পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমছে পাকিস্তানে

কিন্তু দাম কমার পরিবর্তে এ দিন পাকিস্তানে বাড়ল জ্বালনির মূল্য। অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল অবশ্য গত ১৫ তারিখই এক সংবাদ সম্মেলনে এই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

ব্যাপক অর্থনৈতিক চাপের মুখে গত কয়েক মাস ধরে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বরাবর ঋণের জন্য তদবির করতে থাকা এই দেশটির অর্থমন্ত্রী সেই সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আইএমএফ আমাদেরকে জ্বালানির ওপর থেকে ভর্তুকি প্রত্যাহারের শর্ত দিয়েছে।’

‘আর দেশের অর্থনীতির বর্তমান যে অবস্থা, তাতে সরকারও জ্বালানি খাতে আর ভর্তুকি দেওয়ার মতো অবস্থায় নেই।

এসএমডব্লিউ

Link copied