হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, বিপিন রাওয়াতের ভাগ্যে কী ঘটেছে?

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:২৪ পিএম


হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, বিপিন রাওয়াতের ভাগ্যে কী ঘটেছে?

অডিও শুনুন

ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ ও সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতসহ দেশটির জ্যেষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তাদের বহনকারী একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন অন্তত পাঁচজন।

হেলিকপ্টারটিতে বিপিন রাওয়াতের স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতও ছিলেন। তবে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পর বিপিন রাওয়াত বা তার স্ত্রীর ভাগ্যে ঠিক কী ঘটেছে সেটি এখনও জানা যায়নি।

ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই বলছে, ভারতীয় বিমান বাহিনীর এমআই- ১৭ ভি ফাইভ মডেলের এই হেলিকপ্টারটি তামিলনাড়ুর কোয়েন্বাটোর এবং সুলুরের মধ্যে অবস্থিত নীলগিরি পাহাড়ের দুর্গম এলাকায় জঙ্গলের মধ্যে বিধ্বস্ত হয়। হেলিকপ্টারটিতে পাইলট ছাড়াও আরও ১৪ জন আরোহী ছিলেন।

তবে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে- হেলিকপ্টারটিতে মোট ৯ জন আরোহী ছিলেন। দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশের স্থানীয়রা উদ্ধারকাজ শুরু করেন। পরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারী দল পৌঁছে যায়। তারা গুরুতর আহত দু’জনকে হাসপাতালে নিয়ে যান বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়। আহত ওই দু’জনের শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

বেশ কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, বিধ্বস্ত ওই হেলিকপ্টারে ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াতসহ ১৪ জন সামরিক কর্মকর্তা ছিলেন। তাদের মধ্যে বিপিন রাওয়াতের স্ত্রী, প্রতিরক্ষা সহকারী, নিরাপত্তা সহকারী এবং ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলটরা ছিলেন।

এদিকে ওই সামরিক হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হওয়ার বেশ কয়েকটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন প্লাটফর্মে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ধোয়ার কুণ্ডলীও উঠতে দেখা যায়।

এএনআই বলছে, হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পর ওই এলাকায় ভারতের বিশেষায়িত নিরাপত্তা বাহিনী কোবরা এবং পুলিশ সদস্যরা যৌথ অভিযান পরিচালনা করে। ওই অভিযানে একজন সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়। আটককৃত ওই সন্ত্রাসীর নাম ভেনজাম মোহন। তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির আধা-সামরিক বাহিনী সিআরপিএফ।

এদিকে নিহতদের মরদেহ তামিলনাড়ুর ওয়েলিংটনের সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের কারণ অনুসন্ধানে তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

উল্লেখ্য, ভারতের প্রথম চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর তার অবসরের একদিন আগেই এই পদের জন্য রাওয়াতের নাম ঘোষণা করে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

সিডিএস পদের মাধ্যমে কার্যত তিনি ভারতীয় সামরিক বাহিনীর তিন বাহিনীর কাজে সমন্বয়ের দায়িত্বপালন করছেন। তবে নিরাপত্তা বাহিনীকে কোনো নির্দেশ তিনি দিতে পারবেন না।

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে অবসরের বয়স ৬২ বছর। তবে চিফ অব ডিফেন্স স্টাফের অবসরের বয়স ৬৫ বছর। সেই হিসেবে, ২০২৩ সালের মার্চে সিডিএস’র দায়িত্ব থেকে অবসরে যাওয়ার কথা বিপিন রাওয়াতের।

টিএম

Link copied