গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথা? কখন সতর্ক হবেন

Dhaka Post Desk

লাইফস্টাইল ডেস্ক

২১ নভেম্বর ২০২১, ১১:৩০ এএম


গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথা? কখন সতর্ক হবেন

গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথা সাধারণ বিষয়। বর্ধিত সাইনাস কনজেশন, ঘুমের ব্যাঘাত এবং ডিহাইড্রেশন গর্ভবতী নারীর মাথাব্যথার ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, গর্ভাবস্থার মাথা ব্যথা নিরীহ। কিন্তু যে মাথা ব্যথা হঠাৎ ঘটে এবং গর্ভাবস্থার দ্বিতীয়ার্ধে শুরু হয়, তা প্রিক্ল্যাম্পসিয়ার লক্ষণ হতে পারে। এটি বিপজ্জনক অবস্থা যার জন্য দ্রুত চিকিৎসার প্রয়োজন।

প্রিক্ল্যাম্পসিয়া কী?

প্রিক্ল্যাম্পসিয়া হলো একটি গর্ভাবস্থা-সম্পর্কিত জটিলতা, যা রক্তচাপ বাড়িয়ে দিতে পারে এবং গুরুতর ক্ষেত্রে অঙ্গসমূহের ক্ষতি করতে পারে। এটি সাধারণত গর্ভাবস্থার ২০ সপ্তাহ পরে শুরু হয়। যদি চিকিত্সা না করা হয় তবে এটি গুরুতর এবং এমনকি মারাত্মক জটিলতার কারণ হতে পারে। সবচেয়ে কার্যকরী চিকিৎসা হলো শিশুর প্রসব, যা গর্ভাবস্থায় খুব তাড়াতাড়ি প্রিক্ল্যাম্পসিয়া হলে সমস্যা হতে পারে। কারণ শিশুর পরিপক্ক হওয়ার জন্য সময় প্রয়োজন।

গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথার কারণ কী?

গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথা নয় সপ্তাহের পর থেকে বেশি হয় যখন রক্তের পরিমাণ এবং হরমোন বৃদ্ধি পায়। তবে গর্ভাবস্থায় যেকোনো সময় মাথা ব্যথা শুরু হতে পারে। এমন ধরনের মাথা ব্যথা হতে পারে যা আপনি আগে কখনও অনুভব করেননি। এই মাথা ব্যথা মাথার একপাশে বা উভয় পাশে ঘটতে পারে। জেনে নিন কী কারণে এই মাথা ব্যথা হতে পারে-

রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি

গর্ভাবস্থায় রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি সাইনাসের উপর চাপ বাড়াতে পারে, যার ফলে সাইনাস থেকে মাথা ব্যথা হতে পারে।

ঘুমের ব্যাঘাত

পর্যাপ্ত ঘুম না হলে মাথা ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

পানিশূন্যতা

গর্ভাবস্থা-সম্পর্কিত বমি বমি ভাব হবু মাকে পর্যাপ্ত পানি পান করা থেকে বিরত রাখতে পারে, ডিহাইড্রেশন দেখা দিলে তা মাথা ব্যথার ঝুঁকি বাড়ায়।

ক্ষুধা

যত খাবারই খাওয়া হোক না কেন, হবু মায়ের অতিরিক্ত ক্ষুধা লাগতে পারে এবং রক্তে শর্করার পরিমাণ কমে যেতে পারে। যা মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে।

হরমোনের ওঠানামা

হরমোনের ওঠানামা গর্ভাবস্থায় মাইগ্রেনের ব্যথা শুরু করতে পারে।

চিন্তা

ওজন বৃদ্ধি এবং শরীরের পরিবর্তন কাঁধ এবং ঘাড়ে চাপ বাড়ায়, যার ফলে মাথা ব্যথা হয়।

ক্যাফেইন বাদ দিলে

অনেক মহিলা গর্ভাবস্থায় ক্যাফেইন সম্পূর্ণরূপে ত্যাগ করেন, যা মাথা ব্যথা এবং ক্লান্তির কারণ হতে পারে।

উচ্চ রক্তচাপ

প্রিক্ল্যাম্পসিয়া সম্পর্কিত উচ্চ রক্তচাপ মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটি দেখা দিতে পারে গর্ভধারণের ২২ সপ্তাহ পরে। আপনি যদি হঠাৎ মাথা ব্যথা অনুভব করেন, যা আপনি আগে কখনও অনুভব করেননি তবে দ্রুত আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন।

কীভাবে মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন

প্রথমে আপনার মাথা ব্যথার কারণ চিহ্নিত করার চেষ্টা করুন। তাহলে এর সমাধান করা সহজ হবে। জেনে নিন গর্ভাবস্থায় মাথা ব্যথা দূর করতে কী কী করতে পারবেন-

পানি পান করুন

যখনই মাথা ব্যথা অনুভব করবেন তখন এক গ্লাস পানি পান করুন। এটি আপনাকে ডিহাইড্রেশনের কারণে সৃষ্ট মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে পারে।

অন্ধকার এবং নিরিবিলি ঘরে বিশ্রাম করুন

বিশ্রাম উত্তেজনা কমাতে পারে এবং মাথা ব্যথা ব্যাহত করতে পারে। বিশ্রামের সময়, ফোন বা কোনো গ্যাজেটের দিকে তাকানো এড়িয়ে চলুন।

গরম বা ঠান্ডার প্রয়োগ

তাপ এবং ঠান্ডা উভয়ই মাথা এবং ঘাড়ের পেশী শিথিল করতে পারে। যেটি আপনার জন্য কার্যকরী মনে হবে সেটি বেছে নিতে পারেন।

মাথার ত্বক এবং ঘাড় ম্যাসাজ

ম্যাসাজ মাথা ব্যথা উপশম করতে, রক্ত ​​সঞ্চালন উন্নত করতে এবং শিথিলতা বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

কখন ডাক্তারের সাথে দেখা করবেন

গর্ভাবস্থার ত্রৈমাসিকের সময় প্রিক্ল্যাম্পসিয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। আপনি যদি চোখের দৃষ্টিতে সমস্যা অনুভব করেন, তাহলে দ্রুত ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলুন। কারণ এটি প্রিক্ল্যাম্পসিয়ার লক্ষণ হতে পারে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে

Link copied