যেসব ভুলে আবারও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন

Dhaka Post Desk

লাইফস্টাইল ডেস্ক

১২ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৫৮ এএম


যেসব ভুলে আবারও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন

আবারও বাড়তে শুরু করেছে করোনা। নতুন রূপ ও নাম নিয়ে হচ্ছে উপস্থিত। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই আমরা জানি, এই ভাইরাস মোকাবিলায় সচেতন হওয়ার বিকল্প নেই। দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পরেও আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। এর বড় কারণ হলো মানুষের উদাসীনতা, ভুল অভ্যাস। আপনার কিছু ভুল ধারণা বা অভ্যাস ফের এই রোগের কবলে ফেলতে পারে। জেনে নিন কী সেই ধারণা-

একবার আক্রান্ত হলে আর ভয় নেই!

অনেকেরই ধারণা হলো, একবার করেনায় আক্রান্ত হলে দ্বিতীয়বার আর আক্রান্ত হবেন না। কিন্তু চিকিৎসকেরা বলছেন, এটি ভুল ধারণা। কারণ একবার আক্রান্ত হওয়ার পর এন্টিবডি তৈরি হলেও তা একটা সময় পর কমতে শুরু করে। ফলে করোনাসহ যেকোনো ভাইরাসই দ্বিতীয়বার আক্রমণ করতে পারে। একবার আক্রান্ত হওয়ার ছয় মাস পরেই দ্বিতীয়বার আক্রান্ত হতে পারেন! তাই এই বিষয়ে নিজেকে সতর্ক রাখা জরুরি।

Dhaka Post

টিকা নেওয়া হলেই মাস্ক ছাড়া বের হওয়া যাবে!

টিকার দুটি ডোজ নেওয়া হয়ে গেছে বলে আপনি যখন-তখন বাইরে বের হচ্ছেন মাস্ক ছাড়াই? এর মানে হলো অসুখকে আপনি দাওয়াত দিয়ে নিয়ে আসছেন। টিকা নেওয়া হলেও সব রকম বিধি-নিষেধ মেনে বাইরে বের হবেন। টিকা নিলেও এই রোগে আপনি সংক্রমিত হতে পারেন। অনেকের ক্ষেত্রে ভাইরাসের ছোঁয়াচে ভাব বেশি লক্ষ করা যাচ্ছে।

শুধু মাস্ক ব্যবহারই যথেষ্ট!

শুধু মাস্ক পরেই নিজেকে নিরাপদ ভাবতে শুরু করেন অনেকে। তবে শুধু মাস্ক নয়, চশমা ও গ্লাভসও পরতে হবে। কারণ মরণঘাতি করোনা ছড়াতে পারে চোখ ও স্পর্শের মাধ্যমেও। যদি হাসপাতালে না যাওয়া লাগে, তবুও এই অসুখকে হালকাভাবে নেবেন না। কারণ এটি যেকোনো সময় বড় বিপদের কারণ হতে পারে। প্রতিদিন এই অসুখে মৃত্যুর খবরও কিন্তু কম নয়!

Dhaka Post

অযথা ওষুধ খাওয়ার অভ্যাস

অনেকেই নিজে নিজে ডাক্তারি করেন, অর্থাৎ চিকিৎসকের পরামর্শ না নিয়েই ওষুধ খেতে থাকেন। সামান্য ব্যথা বা জ্বর হলেই খেয়ে নেন প্যারাসিটামল বা পেইনকিলার। এই অভ্যাস আপনাকে ঝুঁকির ভেতর ফেলতে পারেন। তাই করোনা হয়েছে কি না জানার জন্য টেস্ট করিয়ে এরপর ব্যবস্থাপত্র গ্রহণ করাই উত্তম। 

আড্ডা- জমায়েত

মানুষ আগের জীবনে ফিরতে শুরু করেছিল। এর ভেতরেই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে করোনাভাইরাস। বিপদ কিন্তু এখনও কাটেনি। তাই আপাতত আড্ডা- জমায়েত এড়িয়ে চলুন। কারণ যত মানুষের জমায়েত হবে, তত এই সংক্রমণ ছড়ানোর ভয় বেশি থাকবে। দীর্ঘদিন সুস্থ থাকার জন্য কিছুদিন নাহয় অতিথি-আড্ডা এড়িয়েই চললেন!

Link copied