‘৪৫ মিনিট হেঁটে অফিসে’

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৬ আগস্ট ২০২২, ০৬:০৮ পিএম


‘৪৫ মিনিট হেঁটে অফিসে’

বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন সাকিব অর্নব। মিরপুরের শেওড়াপাড়া থেকে গুলশান যাবেন, কিন্তু তেলের দাম বাড়ায় এ রুটে বাস কম। আবার সিএনজিচালিত অটোরিকশায় দাম হাঁকানো হচ্ছে কয়েকগুণ বেশি। নিরুপায় হয়ে বেশি ভাড়া দিয়ে তিনজন মিলে সিএনজি নিলেন। মহাখালী নেমে বাস পেলেন না। অগত্যা গুলশান-২ এ অফিস পর্যন্ত ৪৫ মিনিট হেঁটেই যেতে হলো তাকে। 

সাকিব বলেন, সকাল ৮টায় অফিসের উদ্দেশে বের হয়েছি। কিন্তু রাস্তায় বের হয়ে দেখি বাস নেই। সিএনজি ভাড়া বেশি, কিন্তু অফিস তো যেতেই হবে। সকাল ৯টায় অফিস, তাই প্রথমে তিনজন মিলে শেওড়াপাড়া টু মহাখালী একটা সিএনজি নিলাম। ভাড়া ৩০০ টাকা, জনপ্রতি ১০০ করে। এরপর হেঁটে আমতলী গেলাম। দেখি, কোনো বাস তো দূরে থাক, রিকশাওয়ালাও গুলশান যাবে না। নিরুপায় হয়ে হাঁটা শুরু করলাম। সকাল ৮.৪০ মিনিটে হাঁটা শুরু করেছি, গুলশান ২ এ পৌঁছেছি ৯টা ২৫ মিনিটে। তখন গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছিল। ভিজে ভিজেই লেট করে অফিসে ঢুকলাম।

তেলের দাম বাড়ানোয় ভোগান্তিতে পড়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারের এ সিদ্ধান্তের কারণে আমাদের মতো মানুষকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। একে তো অফিসে লেট করে ঢুকেছি, তার ওপর ৩দিন লেট করলে একদিনের বেতন কাটা যাবে। যেখানে সারা দুনিয়ায় তেলের দাম কমছে, সেখানে আমাদের দেশে বাড়ল। জাতীয় পর্যায়ের হরিলুট দুর্নীতির মাশুল দিতে হচ্ছে আমাদের মতো সাধারণ মানুষকে।

গতকাল রাতে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় আজ শনিবার (০৬ আগস্ট) সকাল থেকে রাজধানীর বেশিরভাগ রুটে পরিবহন সংকট দেখা দেয়।

শনিবার সকালে শনির আখড়া বাস স্ট্যান্ডে গিয়ে দেখা যায়, সপ্তাহের অন্য শনিবারের তুলনায় আজ গাড়ির পরিমাণ কম। যেগুলো আসছে, সেগুলো আবার সাইনবোর্ড থেকে ভর্তি হয়ে আসছে। একটু জায়গা ফাঁকা দেখলে পুরুষরা চলন্ত বাসে দৌড় দিয়ে উঠলেও নারীরা পড়েছেন বিপদে। অনেকক্ষণ অপেক্ষা করেও বাস না পেয়ে বাইক ও সিএনজির দাম জিজ্ঞেস করছেন, কিন্তু ভাড়া চাওয়া হচ্ছে কয়েকগুণ বেশি। আবার সেই বাসের জন্যই অপেক্ষা, যদি একটা বাস মিলে!

লোকাল বাস না পেয়ে দূরপাল্লার বাসে উত্তরা থেকে বনানী গেছেন বেসরকারি চাকরিজীবী মামুন অর রশীদ বাপ্পী।

তিনি বলেন, আমি বনানী যাওয়ার জন্য সকাল ৮টার দিকে হাউজ বিল্ডিংয়ে দাঁড়াই। রাস্তায় লোকাল বাস কম ছিল, যেগুলো আসছিল সবগুলো মানুষে ভর্তি ছিল। কিছু দূরপাল্লার বাস চলছিল। আমি মোটামুটি ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করার পর গাজীপুর পরিবহনের একটি বাসে উঠি। গাড়ি কম থাকায় রাস্তা ফাঁকা ছিল, সে কারণে আমি কম সময়ে বনানী পৌঁছেছি ঠিকই, তবে রাস্তায় প্রচুর মানুষকে বাসের জন্য দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেছি।

এদিকে গাড়ি কম থাকায় রাজধানীর অনেক রাস্তাও আজ ফাঁকা। রাজধানীর বেসরকারি একটি কলেজের শিক্ষার্থী শাহনেওয়াজ তৌসিফ বলেন, রাস্তায় আজ বাসসহ অন্য গাড়ি কম মনে হলো। তেলের দাম বাড়ায় হয়ত এমন অবস্থা। উত্তরা থেকে সকালে রওয়ানা দিয়ে বিজয় সরণী আসলাম মাত্র ২৬ মিনিটে।

এএজে/এসকেডি

টাইমলাইন

Link copied