আল্টিমেটাম দিয়ে ৫১২ মৎস্য কর্মচারীর ১৩০ দিনের অবস্থান প্রত্যাহার

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০২ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪৮ পিএম


টানা ১৩০ দিন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থানের পর অবিলম্বে চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি জানিয়ে আল্টিমেটাম দিয়ে কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছে মৎস্য অধিদপ্তরের ৫১২ জন ক্ষেত্র সহকারী। তারা বলেন, রাজস্ব নিয়ে টালবাহানা ও প্রতিশ্রুতি পূরণে অসঙ্গতি দেখা দিলে মৎস্য অধিদপ্তর ঘেরাও করা হবে।

রোববার (২ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি সমাপ্ত ঘোষণা করার সময় ইউনিয়ন প্রকল্পের কর্মচারী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো. সাইদুর রহমান এ ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, অধিদপ্তর থেকে আমাদেরকে পুনরায় আগের মতো একটি প্রকল্প দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। যদিও এটি অস্থায়ী। আমরা আমাদের রাজস্বকরণের দাবি থেকে সরে আসছি না। আমরা অতি দ্রুত রাজস্বকরণের দাবি জানাচ্ছি।

সাইদুর রহমান বলেন, নতুন যে প্রকল্প দেওয়ার কথা বলা হয়েছে এতে যদি কথা ও কাজের সঙ্গে অসঙ্গতি পাই তাহলে আমরা আবার অবস্থান কর্মসূচি পালন করব। এছাড়া রাজস্বকরণের দাবিতে যেকোনো সময় আমরা অধিদপ্তর ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করব। এমনকি সচিবালয় ও মন্ত্রণালয়ের সামনে অবস্থানসহ কঠোর কর্মসূচি দেব।

মৎস্য অধিদপ্তরের অধীন ‘ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্প (২য় পর্যায়)’ শীর্ষক প্রকল্পের রাজস্ব বাজেটের আওতায় বেতনভুক্ত সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত ৫১২ জন কর্মচারীর চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করার দাবি জানিয়ে আন্দোলন করে আসছিলেন। তারা টানা ১৩০ দিন ধরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ আন্দোলন, অনশন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

গত ৩০ জুন তাদের সাত বছরের প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। ফলে তারা বেকার হয়ে পড়েছিল।

অবস্থান কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দিয়েছেন মৎস্য অধিদপ্তরের ইউনিয়ন প্রকল্পের কর্মচারী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো. সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো. জসীম উদদীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ সুমন হোসেন। আন্দোলনে সারা দেশের ইউনিয়ন প্রকল্পের কর্মচারীরা অংশ নেন।

আইবি/এসএসএইচ

Link copied