সব গণপরিবহনে ই-টিকিটিং সুবিধা মিলবে কবে?

Dhaka Post Desk

ঢাকা পোস্ট ডেস্ক

০৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:১৭ পিএম


সব গণপরিবহনে ই-টিকিটিং সুবিধা মিলবে কবে?

ছবি : সংগৃহীত

সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে অপরাধ যেমন বাড়ছে, তেমনি অপরাধের ধরনও পরিবর্তিত হচ্ছে। সংকট হলো, ভুক্তভোগীরা কোনো সহযোগিতা পাচ্ছেন না। আজকের জাতীয় দৈনিকের উল্লেখযোগ্য শিরোনামগুলো দেখে আসি-

প্রথম আলো

জমি জালিয়াত চক্রে ওসি ও সাবরেজিস্ট্রার, সর্বস্বান্ত মানুষ

নীলফামারীর ডিমলার রূপাহারা গ্রামের বাসিন্দা হাফিজুর রহমানের পৈতৃক সূত্রে পাওয়া বাড়িভিটাসহ ৭০ শতাংশ জমি বেদখল হয় তিন বছর আগে। জাল দলিল চক্রের সঙ্গে দুজন সাবরেজিস্ট্রার, পুলিশ, দলিল লেখক ও স্থানীয় এক গণমাধ্যমকর্মীর জড়িত থাকার অভিযোগ।

শীতের দাপটে মৃত্যু বাড়ে। তবে কেন এলাকাভিত্তিক মৃত্যু বেশি হয় সেই সংবাদ গুরুত্ব পেয়েছে আজকের দৈনিকে।

প্রথম আলো

শীতে মৃত্যু বেশি রংপুর ও বরিশালে

বাংলাদেশে শীত ও শীতজনিত রোগে বছরে গড়ে ১০৪ জন মানুষের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর হার বেশি সেসব বিভাগে, যেখানে শীত বেশি পড়ে এবং দারিদ্র্যের হার বেশি। প্রতি ১০ লাখ মানুষের বিপরীতে মৃত্যুর হার বেশি রংপুর ও বরিশাল বিভাগে। মৃত্যু একেবারেই কম ঢাকা বিভাগে। উল্লেখ্য, রংপুর ও বরিশাল দরিদ্র ঘন বিভাগ। বিপরীতে ঢাকা বিভাগে দারিদ্র্যের হার সবচেয়ে কম।

অপরাধের আরেক ধরন হলো, মাটি লুট! পিলারের কাছ থেকে মাটি কেটে তা লুট করে নেয় এই বাহিনী।

কালের কণ্ঠ

লুটের মাটি উন্নতির কাঠি, মাঝি থেকে অঢেল সম্পদের মালিক

কোণ্ডা ইউনিয়নের কান্দাপাড়া, ব্রাহ্মণগাঁও, কাজীরগাঁও, দক্ষিণ পানগাঁও, পানগাঁও ও কাউটাইলে সশস্ত্র ক্যাডার বাহিনী গড়ে তুলেছেন সুজন। তাঁর বাহিনী এলাকায় চাঁদাবাজির পাশাপাশি দখলদারির রাজত্ব কায়েম করেছে। জমি, রাস্তাঘাটের মাটি লুটে মোটা অঙ্কের বিনিময়ে তা বিক্রি করছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সুজনের লুটের মাটি যায় আশপাশের ৪০টি ইটভাটায়। এ ছাড়া সরবরাহ করা হয় মাটি ভরাটের ঠিকাদারি কাজেও।

এছাড়া জাতীয় দৈনিকে গুরুত্ব পেয়েছে ই-টিকিটিং ব্যবস্থার খবর। কোথাও আবার ই-টিকিটিং ব্যবস্থা চালু থাকলেও টিকেট ছাড়া ভাড়া আদায় হচ্ছে।

কালের কণ্ঠ

দুরবস্থায় বাসের ই-টিকিটিং ব্যবস্থা

২০১২-১৩ সালে ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) বাসে প্রথম ই-টিকিটিং ব্যবস্থার প্রচলন করে। তখন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) বাসে যাত্রীদের কাছ থেকে র‍্যাপিড পাসের মাধ্যমে ই-টিকিটে ভাড়া আদায় শুরু হয়। যদিও দীর্ঘ মেয়াদে এই ব্যবস্থা সফলতার মুখ দেখেনি। নতুন করে গত সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকা সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতি ই-টিকিটিং প্রথার প্রচলন করেছে।

ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খানের দুর্নীতি নিয়ে আগেও প্রতিবেদন হয়েছে। কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি কর্তৃপক্ষ। এবার তথ্য এসেছে ওয়াসার তাকসিমের যুক্তরাষ্ট্রে ১৪ বাড়ি খবর। এবারও কি কিছু হবে?

সমকাল

ওয়াসার তাকসিমের যুক্তরাষ্ট্রে ১৪ বাড়ি!

একটি-দুটি নয়, ১৪ বাড়ি! দেশে নয়, সুদূর যুক্তরাষ্ট্রে। ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক শহরে কিনেছেন এসব বাড়ি। সব বাড়ির দাম টাকার অঙ্কে হাজার কোটি ছাড়াবে।

এনআইডি আর পাসপোর্ট অফিসের সেবা নিয়ে অভিযোগ অনেকদিনের। ঘুষ ছাড়া সেখানে কাজ হয় না। তাহলে প্রশ্ন আসে তারা বেতন দেওয়া হয় কেন?

কালের কণ্ঠ

এনআইডি সেবা ইসি না স্বরাষ্ট্রে মতামত জানালেন প্রযুক্তিবিদরা

যুগান্তর

এক অফিসেই দিনে ঘুষ ১০ লাখ টাকা

‘চ্যানেল মাস্টারের’ মাধ্যমে অধিকাংশ পাসপোর্ট অফিসে প্রতিদিন পাসপোর্ট প্রতি ঘুষ তোলা হয়। যার যোগফল কয়েক কোটি টাকা। কমপক্ষে ৫ থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঘুষ ওঠে হাতে হাতে। ঘুষের সদর দপ্তর হিসাবে পরিচিত কুমিল্লা পাসপোর্ট অফিসে দিনেই ঘুষ ওঠে কমপক্ষে ১০ লাখ টাকা।

এছাড়াও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি ও নিম্ন আয়ের মানুষের শীতে কষ্ট পাওয়ার খবরও জাতীয় দৈনিকে গুরুত্ব পেয়েছে।

Link copied