ঢামেকে ভূমিকম্প-অগ্নিকাণ্ড বিষয়ক সচেতনতা মহড়া

Dhaka Post Desk

ঢামেক প্রতিবেদক

০৩ অক্টোবর ২০২১, ০৩:২৬ পিএম


আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস ২০২১ উদযাপন এবং সিপিপির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভূমিকম্প ও অগ্নিকাণ্ড বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার (৩ অক্টোবর) বেলা ১১টা ২০ মিনিটে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধায়নে ১৫০ জন ফায়ার সার্ভিসের সদস্য, ৩৫ জন ভলান্টিয়ার এবং ঢামেক হাসপাতালের বিভিন্ন কর্মচারীদের সহায়তায় এই মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক সাংবাদিকদের জানান, ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় নিয়ে ঢামেকের ৫০ জন দক্ষ র‍্যাপিড রেসপন্স টিম গঠন করা হয়েছে। তারা যেকোনো ঘটনায় ৩০ মিনিটের মধ্যে তাৎক্ষনিক হাজির হবে।

dhaka post

তিনি আরও বলেন, আমাদের স্থাপনাগুলো ১৯৪৬ সালে তৈরি হয়েছিল। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের সুযোগ সুবিধা সংকুচিত হয়ে আসছে। সেখানে এই দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। আমরা এমন সংবাদের শিরোনাম হতে চাই না। আমরা যেন সবার সহযোগিতায় মানুষের কাঙ্ক্ষিত সেবা দিতে পারি। আমাদের এখানে ভেন্যু হিসেবে পছন্দ করার জন্য মন্ত্রণালয়কে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

এ সময় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন (এমপি) বলেন, ফায়ার সার্ভিসে আধুনিক যন্ত্রপাতি কেনায় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ফায়ার সার্ভিস আধুনিক সব যন্ত্রপাতিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ। আধুনিক যেসব যন্ত্রপাতি আমাদের রয়েছে তা দিয়ে আমরা যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলা করতে পারব। 

আজকের মহড়ায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানান মেনন।

dhaka post

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান (এমপি) অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের জানান, আমাদের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এখন আগের চেয়ে অনেক দক্ষ। ফায়ার সার্ভিস এখন আধুনিক। আমরা নতুন প্রযুক্তি সম্বলিত ল্যাডার কেনা হচ্ছে। সারাদেশে ৪৫৬টি ফায়ার স্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে ২২০ কোটি টাকা মূল্যের যন্ত্রপাতি কিনে দেওয়া হয়েছে। যন্ত্রপাতি কেনার জন্য ২২৭২ কোটি টাকা একনেকে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এরই মধ্যে আমরা ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছে।

মহড়ায় আরও উপস্থিত ছিলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রঞ্জিত কুমার সেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অতিরিক্ত সচিব ফরিদ আহম্মদ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক লে. কর্নেল জিল্লুর রহমান এবং ঢামেক হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

এসএএ/এমএইচএস

Link copied