বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিতে একসঙ্গে নিপ্রো-জেএমআই-সনি স্মার্ট

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ জুন ২০২২, ১০:২৩ পিএম


অডিও শুনুন

দেশব্যাপী নিয়মিত হেলথ ক্যাম্পের মাধ্যমে প্রকৃত স্বাস্থ্যসেবা দিতে এখন থেকে একসঙ্গে কাজ করবে স্বাস্থ্যসেবা খাতের অন্যতম শীর্ষ প্রতিষ্ঠান নিপ্রো-জেএমআই এবং প্রযুক্তিপণ্যের বাজারে নেতৃত্ব-দানকারী প্রতিষ্ঠান স্মার্ট টেকনোলজি (বিডি) লিমিটেড।

এ উপলক্ষে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে স্মার্ট টেকনোলজি (বিডি) লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান স্মার্ট ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড (সনি-স্মার্ট) এবং নিপ্রো জেএমআই মেডিকেল লিমিটেডের মধ্যে।

বুধবার (০৮ জুন) রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে সনি-স্মার্টের পক্ষে স্মার্ট টেকনোলজি (বিডি) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম এবং নিপ্রো-জেএমআইয়ের পক্ষে জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক চুক্তিতে সই করেন।

কোম্পানি দুটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, সনি-স্মার্ট জেনুইন কেয়ার কার্যক্রমের আওতায় কর্পোরেট হেলথকেয়ার ও ওয়েলনেস্ প্রোগ্রাম নামে নিয়মিতভাবে দেশের নানা প্রান্তে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। এই সেবার আওতায় সনি-স্মার্ট এবং নিপ্রো-জেএমআইয়ের ক্রেতা, পরিবেশক, কর্মীরা একে অন্যের কাছ থেকে পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবেন। পাশাপাশি, তাদের জন্য ন্যূনতম সাধারণ স্বাস্থ্যসেবা বিনামূল্যে নিশ্চিত করা হবে উন্নত প্রযুক্তি এবং প্রকৃত ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম ব্যবহার করে। দেশের সাধারণ মানুষেরাও পাবে একই ধরনের স্বাস্থ্যসেবা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে সনি সাউথ-ইস্ট এশিয়ার প্রেসিডেন্ট আতসুশি এন্দো বলেন, বাংলাদেশে দীর্ঘদিন ধরে প্রযুক্তি পণ্যের বাজারে নেতৃত্ব দিয়ে আসছে স্মার্ট টেকনোলজি। তারা এখন আমাদের পরিবেশক হিসেবে বাংলাদেশে সনির পণ্য বিক্রি করছে। স্মার্টকে আমরা বেছে নিয়েছি, কারণ পণ্যের মান এবং বিক্রয়-পরবর্তী সেবা নিশ্চিতে তারা আপসহীন। আজকে আমি খুবই আনন্দিত এই জন্য যে সনি-স্মার্ট প্রকৃত পণ্য এবং সেবা বাজারজাতকরণের পাশাপাশি জনসাধারণের স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নেও কাজ শুরু করছে। আমি এ উদ্যোগের সাফল্য কামনা করছি।

নিপ্রো জেএমআই মেডিকেল লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক কুনিও (কেনি) তাকামিদো বলেন, জেএমআই গ্রুপের সঙ্গে মিলে একযুগেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে কাজ করছে নিপ্রো করপোরেশন। আমরা চাই মানসম্মত চিকিৎসাসরঞ্জাম, ওষুধ ও চিকিৎসা নিশ্চিতের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা বিশ্বের মধ্যে শ্রেষ্ঠ হিসেবে জায়গা করে নেবে। বাংলাদেশে ডায়াবেটিক রোগীদের সহায়তায় আমরা বিশেষভাবে কাজ করছি। সনি-স্মার্টের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার ফলে আমাদের কার্যক্রম আরও গতিশীল হবে এবং একসঙ্গে মিলে আমরা অনেক বেশি মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারব বলে আমি বিশ্বাস করি।

জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা খাতের উন্নয়নে নিপ্রো-জেএমআই ইতোমধ্যে একটি স্বীকৃত নাম। একইভাবে দেশে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের বাজারে নেতৃত্ব দিচ্ছে সনি-স্মার্ট। সুতরাং নিপ্রো-জেএমআই এবং সনি-স্মার্ট, দুটি বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান এবং দুটি জাপানি প্রতিষ্ঠান, মিলে যখন কাজ করবে, তখন তা সর্বশ্রেষ্ঠ হবে বলেই আমার বিশ্বাস। আমরা নিপ্রো-জেএমআই দেশের স্বাস্থ্যসেবা খাতের প্রতিষ্ঠান হিসেবে সবসময় গুণগত মানের বিষয়ে প্রাধান্য দিয়ে থাকি। তাই সনি-স্মার্টের সঙ্গে মিলে আমরা যে সেবা দেব, তাতে সাধারণ মানুষ নিঃসন্দেহে উপকৃত হবেন।

স্মার্ট টেকনোলজি (বিডি) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম জানান, প্রকৃত মূল্যে প্রকৃত পণ্য এবং সেবা দেওয়ার মূলমন্ত্র পুঁজি করে বর্তমানে দেশের সর্বোত্তম ক্রেতা সন্তুষ্টি অর্জনকারী প্রতিষ্ঠান, স্মার্ট ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটিড (সনি-স্মার্ট)। পণ্য বাজারজাত করার পাশাপাশি প্রকৃত সেবা নিশ্চিতের অংশ হিসেবে দেশের ক্রেতা, শুভানুধ্যায়ী এবং সর্বোপরি জনসাধারণের জন্য আমাদের বিশেষ উদ্যোগ, বিনামূল্যে ন্যূনতম সাধারণ স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা। আমাদের এই আয়োজনের মূল অংশীদার হিসেবে দেশের স্বাস্থসেবা খাতে মানসম্মত এবং উন্নত মানের সুবিধা দিয়ে সর্বসাধারনের স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা চিহ্নিতরণ ও সমাধানে কাজ করবে নিপ্রো জেএমআই মেডিকেল লিইমি।

তিনি বলেন, আমরা আইটি কোম্পানি। তারপরও টেকনোলজির সঙ্গে স্বাস্থ্য খাতের সংযোগ ঘটাতে চাচ্ছি। আমরা আমাদের কর্মীদের সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেই। কারণ, আমরা মনে করি কর্মী যদি সুস্থ না থাকে, তাহলে গ্রাহকের সন্তুষ্টি সম্ভব না। এজন্য আমাদের অফিসে ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম তৈরি করা হয়েছে, কেউ অসুস্থ হলে যেন তাড়াতাড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যায়। একই সঙ্গে আমরা ইমার্জেন্সি মেডিসিনগুলো সংরক্ষণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ টেকনোলজির দিক দিয়ে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, একইভাবে স্বাস্থ্যখাতে আমাদের আরও এগোনো দরকার। যখন বড় কোনো বিপদ আসে, তখন কিন্তু বর্ডার বন্ধ হয়ে যায়। কেউ কারো জন্য বর্ডার খোলা রাখে না। সুতরাং, এই জায়গায় আমাদের কী পরিমাণ গুরুত্ব দেওয়া উচিত, সেটা নিশ্চয়ই আমরা বুঝতে পারছি।

জহিরুল ইসলাম বলেন, এদেশে যেহেতু আমরা ব্যবসা করছি, আমাদের ভাগ্যের চাকা খুলেছে, তাহলে কেন আমরা সামাজিক দায়বদ্ধতা ভুলে যাব? যারা আমাদের সঙ্গে ব্যবসা করছে তারা অথবা সাধারণ জনতা যারা আছে, তাদের কল্যাণে যতটুকু এগিয়ে আসার সুযোগ আছে, আমরা সেই চেষ্টা করব। অন্য কোম্পানিদেরও আহ্বান জানাচ্ছি, তারাও যেন এই বিষয়ে উদ্যোগী হয়।

স্মার্ট টেকনোলজি (বিডি) লিমিটেডের এ ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও বলেন, যেহেতু আমরা মাত্র শুরু করেছি, আমাদের হয়তো অনেক ভুল-ত্রুটি থাকতে পারে, আমরা সেগুলো শুধরে নেব এবং আরও কতটা সুন্দর করা যায় সেই চেষ্টাই করব। আমাদের হেলথ কেয়ার আমরাই দেখাশোনা করব।

এএজে/এসএম

Link copied