বিমানের ৫০ বছর পূর্তির লোগো উন্মোচন আজ

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২০ নভেম্বর ২০২১, ১০:২০ এএম


বিমানের ৫০ বছর পূর্তির লোগো উন্মোচন আজ

৫০ বছরে পা রাখতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিমানের ৫০ বছর পূর্তির লোগো উন্মোচন করা হবে আজ (শনিবার)।

মাত্র একটি এয়ারলাইন্স নিয়ে ১৯৭২ সালের ৪ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করা রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী প্রতিষ্ঠানটির বহরে বর্তমানে ২১টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। দেশের অভ্যন্তরীণ সব রুটে ফ্লাইট চালানোর পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ এশিয়া ও ইউরোপেও পাড়ি জমিয়েছে বিমান।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম-পিআর) তাহেরা খন্দকার জানান, মুজিববর্ষ ও বিমানের ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স শনিবার (২০ নভেম্বর) বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকার সবুজ চত্বরে আলোচনা সভা এবং ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শিরোনামে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বিমানের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিমান পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসান এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করবেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. আবু সালেহ্ মোস্তফা কামাল।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স জানায়, ১৯৭২ সালে মাত্র একটি ডিসি-৩ উড়োজাহাজ নিয়ে যাত্রা শুরু করা বিমানে এখন ২১টি উড়োজাহাজ রয়েছে। লন্ডন, ম্যানচেস্টার, দুবাই, আবুধাবি, মাস্কাট, কুয়েত, জেদ্দা, মদিনা, দাম্মাম, রিয়াদ, দোহা, কাঠমান্ডু, ব্যাংকক, দিল্লি, কলকাতা, সিঙ্গাপুর ও কুয়ালালামপুরে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। করোনার ধকল কাটিয়ে ভবিষ্যতে জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা ছাড়াও ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে ফ্লাইট চালুর পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

১৯৭২ সালের ৪ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে ও সার্বিক সহযোগিতায় এয়ারলাইন্সটির পথচলা শুরু হয়। এই দীর্ঘ যাত্রাপথে অসংখ্য মানুষের সান্নিধ্যে ও ভালবাসায় সিক্ত হয়েছে বিমান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টা এবং বিমানের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসার কারণে একটি ডিসি-৩ উড়োজাহাজ নিয়ে যাত্রা শুরু করা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহর এখন ২১টি উড়োজাহাজ দ্বারা সমৃদ্ধ হয়েছে।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বিভিন্ন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে এবং তা বাস্তবায়ন করছে। 

‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে বিমানের নিজস্ব ১৬টি উড়োজাহাজে মুজিববর্ষের লোগো ছাপানো হয়েছে। উড়োজাহাজের অভ্যন্তরে ইন-ফ্লাইট এন্টারটেইনমেন্টের প্রতিটি সিটের এলইডি মনিটরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কিত তিন মিনিটের ভিডিও, লোগো ও ছবি প্রদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে যা মুজিববর্ষ ব্যাপী চলমান থাকবে।

বিমানের প্রতিটি টিকিট ফোল্ডার, ক্যালেন্ডার, নোটবুক ও ডায়েরিতে মুজিববর্ষের লোগো ছাপানো ও বিতরণ সম্পন্ন হয়েছে। বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকার প্রবেশমুখে স্থাপিত ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ডে মুজিব বর্ষের লোগো ও ভিডিও প্রদর্শন চলমান। মুজিববর্ষ উপলক্ষে বলাকা ভবনে স্থাপিত ‘মুক্তিযুদ্ধ কর্নারের’ জন্য বই ক্রয় ও সংগ্রহের মাধ্যমে ‘মুক্তিযুদ্ধ কর্নার’ আরো সমৃদ্ধ করা হয়েছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সর্বদা দেশের প্রয়োজনে যাত্রী ও কার্গো পরিবহন সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। সাশ্রয়ী খরচে টিকা ও সুরক্ষাসামগ্রী পরিবহনসহ মহামারী ও অন্যান্য কারণে দেশে-বিদেশে আটকে পড়া বাংলাদেশি নাগরিকদেরকে কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে পৌঁছে দিতে নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে বিমান।       

এআর/ওএফ

Link copied