পাবিপ্রবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৩০ জুলাই

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, পাবনা

২৬ জুলাই ২০২২, ০৮:১০ এএম


পাবিপ্রবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৩০ জুলাই

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৩০ জুলাই শুরু হবে। এ দিন ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে তিন ধাপের পরীক্ষার প্রথম ধাপ শুরু হবে।

সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরে উপাচার্য কার্যালয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এক সভায় এ তথ্য জানানো হয়। পরে বিকেলে গণসংযোগ বিভাগ থেকে গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।

সভায় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির পক্ষ থেকে কমিটির আহ্বায়ক ও উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন জানান, ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে ২২টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করছে। গুচ্ছ পদ্ধতিতে আবেদনকারীরা পছন্দমতো ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের যে কোনোটিতে ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারবে। 

তবে আবেদনকারীদের মধ্যে পাবনার কেন্দ্রসমূহে তিনটি ইউনিটে সরাসরি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন ১৭ হাজার ৪৩৮ জন। এর মধ্যে এ ইউনিটে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্র ছাড়াও আরও ১০টি কেন্দ্রে মোট ১০ হাজার ৭৮৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। ৩০ জুলাই দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত এ (বিজ্ঞান) ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় উপাচার্য বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। পরীক্ষার দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নমূলক কাজ বন্ধ থাকবে। দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি ব্যতীত কেউ কোনো কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবে না। যেহেতু অনেক মানুষের সমাগম হবে, তাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সর্বোচ্চ সহযোগিতা দরকার। পাশাপাশি পাবনাবাসীরও সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি।’

ভর্তি পরীক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষা জাতীয় ইস্যু। সকলের সহযোগিতায় সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করতে হবে।’

সভায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধিরা জানায়, পরীক্ষার্থী ও অভিভাবক মিলে প্রায় ৩০ হাজার মানুষের সমাগম ঘটবে। মানুষের হয়রানি কমানোর জন্য ট্রাফিক সিস্টেম উন্নত করা হবে। বিভিন্ন চেক পয়েন্টে তল্লাশি করা হবে। ৬টি মোবাইল টিম সার্বক্ষণিক কাজ করবে। কেউ যাতে অসদুপায় অবলম্বন করতে না পারে, সেজন্য আগের দিন থেকে শহরের সব ফটোস্ট্যাট মেশিন বন্ধ করে দেওয়া হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সর্বাত্মক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে, প্রত্যেক কেন্দ্রে পুলিশ থাকবে। র‌্যাবের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। থাকবে কেন্দ্রভিত্তিক বিশেষ মোবাইল টিম।

এছাড়া সরকারের বিভিন্ন সংস্থা কাজ শুরু করে দিয়েছে। গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। কোনোরকম বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করতে দেওয়া হবে না। ডিজিটাল সিকিউরিটি বাড়ানো হবে। কোনো কেন্দ্রে বহিরাগতদের ঢুকতে দেওয়া হবে না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম মনিটরিং করা হবে।

প্রসঙ্গত, বি (মানবিক) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১৩ আগস্ট ৪টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৫ হাজার ৩৪৫ জন অংশগ্রহণ করবেন। সর্বশেষ সি (বাণিজ্য) ইউনিটের পরীক্ষা ২০ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রে ১ হাজার ৩১০ জন পরিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবেন।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধি, রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব), প্রক্টর, পরীক্ষা কমিটির সদস্য সচিবসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা।

রাকিব হাসনাত/এসপি

Link copied