মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ১

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, গাজীপুর 

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৮:১৪


মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ১

মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নের সিরাজপুর গ্রামে সুদের টাকার জন্য মা ও মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) নির্যাতনের শিকার মমতাজ বেগম বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে এ মামলা করেন। 

পরে দুপুরে ঘটনার সাথে জড়িত একই গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে সবুজ উদ্দিনকে (৫০) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনি সুদের টাকার জন্য মমতাজ বেগম (৩০) ও তার মেয়ে ঝুমা আক্তারকে  (১৬) গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করেন। 

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- সিরাজপুর গ্রামের আব্দুল গফুর, কুলসুম বেগম, শিল্পী, মুক্তা আক্তার, মনির হোসন, রিপন, শহীদ ও নয়ন সিকদার। 

কালিয়াকৈর থানাধীন ফুলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের উপপরিদর্শক (এসআই) জামাল উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু হয়েছে। 

এদিকে ঘটনার পর গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ডিএস বি) আমিনুল ইসলাম, কালিয়াকৈর থানার ওসি মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

উল্লেখ্য, সিরাজপুর গ্রামের আব্দুল গফুর মিয়ার স্ত্রী কুলসুম বেগমের কাছ থেকে একই গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের স্ত্রী মমতাজ বেগম দুই মাস আগে সুদে ১৭ হাজার টাকা ধার করেন। দুই মাসের মধ্যে মমতাজ বেগম সুদের টাকা দিতে না পারায় কুলসুম বেগম তাকে একাধিকবার তাগিদ দেন। টাকা দিতে না পারায় বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে গাছের সাথে বেঁধে মমতাজ বেগম ও তার মেয়ে ঝুমা আক্তারকে নির্যাতন করা হয়।

মিলটন খন্দকার/আরএআর

Link copied