আম কিনতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেল চাচা-ভাতিজার

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, চুয়াডাঙ্গা

২১ জুন ২০২২, ০৮:১৪ এএম


আম কিনতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেল চাচা-ভাতিজার

চুয়াডাঙ্গা থেকে আম কিনতে নাটোরে যাওয়ার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছেন। সোমবার (২০ জুন) সকালে নাটোরের লালপুর উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নের গোদড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন বনপাড়া হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ হোসেন।

নিহত মন্টু ফকির (৫০) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ডাউকি ইউনিয়নের হাউসপুর গ্রামের হঠাৎপাড়ার নবিস উদ্দিনের ছেলে এবং শাহীন (২৫) একই এলাকার আব্দুল হান্নানের ছেলে। তারা আপন চাচা-ভাতিজা বলে জানা গেছে। সোমবার রাত ১০ টার দিকে জানাজা নামাজ শেষে গ্রামের কবরস্থানে তাদের দাফন করা হয়।

বনপাড়া হাইওয়ে থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে আলমসাধুযোগে দুজন আম কেনার উদ্দেশে নাটোরের আহম্মেদপুর বাজারে যাচ্ছিল। পথে বড়াইগ্রামের বনপাড়া-গোদড়া এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আলমসাধু মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে চালকসহ তিনজনই আলমসাধুর নিচে পড়ে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বনপাড়া জাহেদা হাসপাতালে ভর্তি করে। এর কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজন মারা যান।

হাউসপুর গ্রামের ইউপি সদস্য বদর উদ্দিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, আম কিনতে যাওয়ার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছে। তারা বিভিন্ন জেলায় ঘুরে আম কিনে তা বিক্রি করত। বিকেলে মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে দুই পরিবারে নেমে আসে শোকের ছায়া। রাত ১০টার দিকে জানাজার নামাজ শেষে গ্রামের কবরস্থানে দাফন করা হয়।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ হোসেন ঢাকা পোস্টকে বলেন, চুয়াডাঙ্গা থেকে আম কিনতে আসার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দুর্ঘটনাকবলিত আলমসাধুটি জব্দ করা হয়েছে। অভিযোগ না থাকায় সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

আফজালুল হক/এসপি

Link copied