৫ বছরের মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন সৎমা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

০৬ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪২ পিএম


৫ বছরের মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন সৎমা

তানিশা ও তার সৎমা তিথি আক্তার মুক্তা

খুলনার তেরখাদায় পাঁচ বছরের শিশু তানিশা আক্তারকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার সৎমা তিথি আক্তার মুক্তা (২২) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক আলিফ রহমানের কাছে তিনি জবানবন্দি দেন। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তেরখাদা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সফিক ঢাকা পোস্টকে বলেন,  শিশু তানিশার সৎমা তিথি আক্তার মুক্তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকেল ৪টায় আদালতে প্রেরণ করা হয়। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

তেরখাদায় শিশু তানিশা আক্তারকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় সোমবার (০৫ এপ্রিল) রাত ১২টায় তার সৎমা তিথি আক্তার মুক্তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে হত্যার সময় ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। নিহত তানিশার বাবা তেরখাদার আড়কান্দী গ্রামের খাজা শেখ আনসার ব্যাটালিয়নে কর্মরত। তিনি সাত বছর আগে একই উপজেলার আক্কাস শেখের মেয়ে তাসলিমাকে বিয়ে করেছিলেন। পরে দাম্পত্য কলহের একপর্যায়ে তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। বছর দেড়েক আগে তিথি আক্তার মুক্তাকে বিয়ে করেন খাজা শেখ।

এসআই সফিক বলেন, শিশুটির সৎমা তিথি আক্তার মুক্তার আগে একটি বিয়ে হয়েছিল। সেখানে তার একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। সেই স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের একপর্যায়ে শিশু তানিশার বাবার সঙ্গে বিয়ে হয় তার। সম্প্রতি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। মুক্তার বর্তমান স্বামী তাকে সন্দেহ করতেন। প্রায়ই বকাঝকা করতেন। এমন অবস্থায় ক্ষিপ্ত হয়ে মুক্তা তার সৎমেয়ে তানিশাকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন

তেরখাদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা বলেন, প্রাথমিকভাবে তিথি আক্তার মুক্তা সৎমেয়েকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

মোহাম্মদ মিলন/আরএআর

Link copied