শিশু শিক্ষার্থীকে পেটানোয় মাদরাসা শিক্ষক কারাগারে

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি,কুড়িগ্রাম

২২ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৩ পিএম


শিশু শিক্ষার্থীকে পেটানোয় মাদরাসা শিক্ষক কারাগারে

গ্রেফতার আবু সাইদ

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে কওমি মাদরাসার দ্বিতীয় জামায়াতের সাত বছরের এক শিক্ষার্থীকে অমানুষিকভাবে পেটানোর অভিযোগে আবু সাইদ নামে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (২১ এপ্রিল) গভীর রাতে উপজেলা সদরের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের পেছনের সড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।   

গ্রেফতার আবু সাইদ পাথরডুবি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিবর রহমানের ছেলে। 

ভূরুঙ্গামারী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, উপজেলার পাথরডুবি ঢেবঢেবি বাজারের কিসমত-কুলসুম কওমি নুরানি ও হাফেজি মাদরাসার লাম নামের এক শিশু শিক্ষার্থীকে অমানুষিকভাবে মারধর করা হয়। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও তিনদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি পুলিশের নজরে আসে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক আবু সাইদকে গ্রেফতার করে।  

ওসি আরও জানান, নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার অভিযোগ নেই। তবে শিশু আইনে যে কেউ বাদী হতে পারে। ফলে পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

উল্লেখ্য, নির্ধারিত বাড়ির কাজ না লিখে অন্য লেখা জমা দেওয়ার অপরাধে গত ১৯ এপ্রিল ওই শিক্ষক কর্তৃক মাদরাসার দ্বিতীয় জামায়াতের সাত বছরের লাম নামের এক শিক্ষার্থীকে বেদম মারপিটের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিও দেখে ওই শিক্ষার্থীর বাবা পাথরডুবী বাজারের বাসিন্দা এবং ঢেবঢেবি বাজারের ব্যবসায়ী মোতালেব হোসেন জানতে পারেন তার সন্তানকে এ রকম অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে হয় প্রতিনিয়ত। ওইদিন বিকেলে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ মাদরাসায় সালিস বৈঠক করে অভিযুক্ত শিক্ষককে বহিষ্কার করে।

জুয়েল রানা/আরএআর

Link copied