কাজ শেষের আগেই ধসে পড়ল উপহারের ঘর

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম

০১ জুন ২০২১, ১০:৩১ পিএম


কাজ শেষের আগেই ধসে পড়ল উপহারের ঘর

মাটি ধসে ভেঙে পড়েছে চারটি ঘর

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে মুজিববর্ষের উপহার আশ্রয়ণ প্রকল্পের চারটি ঘরের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার আগেই ভেঙে পড়েছে। সোমবার (৩১ মে) ভোরে উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিণধরা (বগারচর) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করা হচ্ছে বলে দাবি স্থানীয়দের।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আজিজুর রহমান জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ‌ভূমিহীন ও গৃহহীনদের পুনর্বাসন প্রকল্প (আশ্রয়ণ প্রকল্প-২) এর আওতায় দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নে ৩৫ পরিবারকে এ সুবিধার আওতায় আনা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রথম ধাপে ৯টি ঘর দেওয়া হয়। প্রতিটি গৃহ নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। দ্বিতীয় ধাপে ২৬টি ঘর দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি গৃহ নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

ইতোমধ্যে ৯টি গৃহ নির্মাণ শেষে সুবিধাভোগীদের মাঝে চাবি হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকিগুলোর কাজ চলমান রয়েছে। উপজেলা প্রশাসন সরাসরি এ নির্মাণকাজের তত্ত্বাবধান করেন। নিম্নমানের কাজ নয়, মূলত মাটির ৪টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তিনি জানান।

সোমবার (৩১ মে) সরেজমিনে গেলে ওই গ্রামের মতিয়ার রহমান বলেন, নিচু জায়গা ও বালুমাটিতে ঘরগুলো নির্মাণ করা হয়েছে। ঘরের ফাউন্ডেশন না থাকায় নিচের মাটি ধসে ৪টি ঘর ভেঙে পড়েছে। নামমাত্র বালু ভরাট করে কাজ করায় এমনটি হয়েছে।

সুবিধাভোগী শাহাজামাল ও ফুলো রানি বলেন, জমি নিচু ও বালু হওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতেই ঘরের নিচের মাটি ধসে ৪টি ঘর ভেঙে গেছে। এভাবে ঘর ভেঙে পড়লে আমরা যাব কই?

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল ইমরান বলেন, যে ঘরগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তা মেরামত করে দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে কাজ শুরু করা হয়েছে। মূলত মাটির কারণে এমনটা হয়েছে।

জুয়েল রানা/এমএসআর

Link copied