ডলার বাঁচাতে কর্মদিবস কমানোর সুপারিশ পাকিস্তানে

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ মে ২০২২, ০৮:১২ পিএম


ডলার বাঁচাতে কর্মদিবস কমানোর সুপারিশ পাকিস্তানে

ব্যাপক আর্থিক ও জ্বালানি সংকটে ভুগতে থাকা পাকিস্তানে কর্মদিবস কাটছাঁট করার সুপারিশ করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক দ্য স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান। সোমবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক প্রতিবেদনে করা হয়েছে এ সুপারিশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, যদি এখন থেকে সাপ্তাহিক কর্মদিবসের সংখ্যা ৫ দিন থেকে ৪ দিনে নামিয়ে আনা হয়, তহলে জ্বালানি তেলের খরচ কম হবে এবং বছর শেষে অন্তত ২৭০ কোটি ডলার বাঁচানো সম্ভব হবে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, চলতি অর্থবছরের ১০ মাসে, অর্থাৎ ২০২১ সালের জুলাই থেকে ২০২২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ব বাজার পেট্রোলিয়ামজাত পণ্য (ডিজেল, পেট্রোল, অকটেন) ও অপরিশোধিত পেট্রোলিয়াম আমদানি করতে ১ হাজার ৭০০ কোটিরও বেশি ডলার ব্যয় করে ফেলেছে পাকিস্তান।

শতকরা হিসেবে গত ২০২০-২১ অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ১০ মাসে পাকিস্তানে জ্বালানি ক্রয় বাবদ অর্থ ব্যায়ের পরিমাণ বেড়েছে ৯৬ শতাংশ। এর মধ্যে পেট্রোলিয়ামজাত পণ্যের আমদানি ব্যায় বেড়েছে ১২১ শতাংশ ও অপরিশোধিত পেট্রোলিয়ামের আমদানি ব্যয় বেড়েছে

গত ২০২০-২১ অর্থবছরের তুলনায় চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে জ্বালানি তেল বাবদ ব্যায়ের পরিমাণ ৯৬ শতাংশ বেড়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদেনে। গত বছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরে পেট্রোলিয়ামজাত পণ্যের আমদানি ব্যয় বেড়েছে ৭৫ শতাংশ।

স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তানের কর্মকর্তাদের মতে, বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার কারণেই পাকিস্তানে জ্বালানি বাবদ অর্থ ব্যায়ের পরিমাণ বেড়েছে— এমন নয়। গত এক বছরে দেশে বেড়েছে জ্বালানির চাহিদাও। এর মধ্যে পেট্রোলিয়ামজাত বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা বেড়েছে ২৪ শতাংশ ও অপরিশোধিত পেট্রোলিয়ামের চাহিদা বেড়েছে ১ দশমিক ৩৬ শতাংশ।

প্রতিবেদনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখন থেকে যদি সপ্তাহে দুই দিন ছুটি ও একদিন লকডাউন জারি রাখা হয়, সেক্ষেত্রে প্রতি মাসে ১৭ কোটি ৫০ লাখ ডলার সাশ্রয় করা সম্ভব। এবং বছর শেষে সাশ্রয় হওয়া ডলারের সংখ্যা পৌঁছাবে ২৭০ কোটিতে।

Link copied