পুলিশের এসআই পদে নিয়োগ, প্রস্তুতি নেবেন যেভাবে

Dhaka Post Desk

চাকরি ডেস্ক

০৯ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৩ এএম


পুলিশের এসআই পদে নিয়োগ, প্রস্তুতি নেবেন যেভাবে

বাংলাদেশ পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই-নিরস্ত্র) পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। যদিও কতজন নেওয়া হবে তা এখনো বলা হয়নি। শুক্রবার ৮ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে ৪ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে চাকরির জন্য আবেদন করা যাবে। আবেদন করতে police.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে লগ ইন করে ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে।

জাতীয় বেতন স্কেলে (২০১৫) দশম গ্রেডের এই চাকরির জন্য প্রতিবারের মতো এবারও তুমুল প্রতিযোগিতা হবে। তাই যুতসই প্রস্তুতি না থাকলে চাকরি পাওয়া মুশকিল।

এ পদে কয়েক ধাপের নিয়োগ পরীক্ষার মধ্যে সবচেয়ে কঠিন হচ্ছে তিন ধাপের লিখিত পরীক্ষা। ২২৫ নম্বরের এ পরীক্ষা নেওয়া হবে তিন দিন। প্রথম দিন ইংরেজি, বাংলা রচনা ও কম্পোজিশনের ১০০ নম্বরের পরীক্ষা। দ্বিতীয় দিন সাধারণ জ্ঞান ও পাটিগণিতে ১০০। সবশেষে মনস্তত্ত্বে ২৫ নম্বরের পরীক্ষা। বিজ্ঞপ্তি অনুসারে এ পদের লিখিত পরীক্ষা হবে চলতি বছরের ২৭, ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর।

চলুন তাহলে জেনে নিই, পরীক্ষার প্রস্তুতি কীভাবে নেবেন-
 
ইংরেজি, বাংলা রচনা ও কম্পোজিশনের প্রস্তুতি

ইংরেজিতে ৫০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে। বাকি ৫০ নম্বর বাংলা রচনা ও কম্পোজিশনে। ইংরেজি অংশে সাধারণত Essay (১৫ নম্বর) ও Letter (১০ নম্বর) লিখতে হয়। বাকি ২৫ নম্বর আসে Translation, Fill in the blanks ও Phrase and Idioms-এর ওপর।

বাংলা রচনা ও কম্পোজিশন অংশে একটি রচনা (১৫ নম্বর) ও ভাব-সম্প্রসারণ (১০) লিখতে হয়। এ ছাড়া বাগধারা দিয়ে বাক্য তৈরিতে ১০, এককথায় প্রকাশে ৫ ও বঙ্গানুবাদে ১০ নম্বর বরাদ্দ থাকে।

সাধারণ জ্ঞান ও পাটিগণিতের জন্য কী পড়ব?

পাটিগণিত ও সাধারণ জ্ঞানে ৫০ করে মোট ১০০ নম্বর। গণিত অংশ পাঁচটি প্রশ্ন দিয়ে সাজানো থাকতে পারে। পাটিগণিতের পাশাপাশি বীজগণিত ও জ্যামিতি (নবম-দশম শ্রেণির) থেকেও প্রশ্ন হয়। সুদকষা, লাভ-ক্ষতি, ঐকিক নিয়ম, সরল, শতকরা, উত্পাদক, মান নির্ণয় থেকে সাধারণত বেশি প্রশ্ন থাকে। অষ্টম শ্রেণির গণিত বইয়ের পাটিগণিত অংশ ও বিভিন্ন শ্রেণির পুরনো সিলেবাসের পাটিগণিত বই অনুশীলন করলে পরীক্ষায় ভালো করা যাবে।

সাধারণ জ্ঞানে দুটি অংশ-বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক। সাম্প্রতিক ঘটনাবলি থেকে প্রশ্ন আসার সম্ভাবনা বেশি। রোহিঙ্গা সমস্যা, সিরিয়া সংকট, ভারত-পাকিস্তান সম্পর্ক, উত্তর কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকেও প্রশ্ন আসতে পারে।

বাংলাদেশ অংশে মুক্তিযুদ্ধ, বাংলাদেশের সংবিধান, উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব, আলোচিত ঘটনা, স্থাপনা, ঐতিহাসিক স্থান থেকে প্রশ্ন থাকতে পারে। সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের পাশাপাশি বর্ণনামূলক, এককথায় প্রকাশ, টীকা আকারেও প্রশ্ন আসতে পারে।

মনস্তত্ত্ব পরীক্ষায় কি থাকে?

মনস্তত্ত্ব পরীক্ষায় আইকিউ ও কুইজ টাইপের প্রশ্ন থাকতে পারে। অনেক সময় পাটিগণিত ও জ্যামিতির ধাঁধাও দেওয়া থাকে। সাদৃশ্য-বৈসাদৃশ্য, শব্দ বা সংখ্যা চিহ্নিতকরণ, সমস্যার সমাধান, সম্পর্ক নির্ণয়, গাণিতিক যুক্তি, সাধারণ জ্ঞান, পূর্ণরূপ, সঠিক উত্তর, সংক্ষিপ্ত টীকা আকারেও প্রশ্ন থাকতে পারে।

মৌখিক পরীক্ষার প্রস্তুতি

মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্দিষ্ট কোনো বিষয় নেই। একজন প্রার্থী স্নাতক পর্যন্ত যা পড়েছে, যা দেখেছে, যা শুনেছে, তা থেকেই প্রশ্ন আসবে। এ পরীক্ষায় প্রার্থীর মনস্তত্ত্ব বা মানসিক বিকাশ যাচাই করা হয়। প্রার্থীর নিজ জেলা, উপজেলা নিয়েও প্রশ্ন করা হতে পারে।

 

Link copied