স্কটল্যান্ড ও কার্ডিফে নির্বাচনে ৭ বাংলাদেশির সাফল্য

Dhaka Post Desk

মাহবুব আলী খানশূর, যুক্তরাজ্য

১২ মে ২০২২, ০৯:৪০ পিএম


স্কটল্যান্ড ও কার্ডিফে নির্বাচনে ৭ বাংলাদেশির সাফল্য

রাজনীতিতে ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনে বাংলাদেশিদের অবস্থান শক্ত হলেও অন্যান্য শহরে ছিল কিছুটা দুর্বল। ইদানিং অন্যান্য শহরেও বাংলাদেশিরা সক্রিয়ভাবে অংশ নিচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় এবার দেশটির স্থানীয় সরকার নির্বাচনে স্কটল্যান্ডে প্রথমবারের মতো দুই জন কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। আর ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফে আপন দুই বোনসহ পাঁচ জন বাংলাদেশি কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

ইংল্যান্ড, ওয়েলস, স্কটল্যান্ড ও নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড নিয়ে গঠিত গ্রেট ব্রিটেন। ইংল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে বাংলাদেশিরা রাজনীতিতে সক্রিয় এবং এখানে চার জন এমপি রয়েছেন বাংলাদেশি। এছাড়া বিভিন্ন বারায় রয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মেয়র। ব্রিটেনের জাতীয় নির্বাচনে স্কটল্যান্ডে গতবার একজন বাংলাদেশি এমপি প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হন। আর এবার স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নির্বাচিত হলেন দুই জন বাংলাদেশি কাউন্সিলর।

স্কটল্যান্ডের এবার্ডিন সিটি কাউন্সিল থেকে বিরোধী লেবার পার্টির হয়ে নুরুল হক আলী এবং ফাইফ সিটি কাউন্সিল থেকে স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) হয়ে নাজ আনিস মিয়া কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

বাংলাদেশি কমিউনিটি থেকে স্কটল্যান্ডের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এবার পাঁচ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তবে দুই জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। নুরুল হক আলী এবার্ডিনের ব্রিজ অব ডন ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত হন। পেশায় মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার নুরুল হকের জন্ম সিলেটের সুনামগঞ্জে এবং বেড়ে উঠেছেন লন্ডনে। এদিকে সেন্ট্রাল স্কটল্যান্ডে থেকে ফাইফ কাউন্সিল থেকে এসএনপি থেকে নির্বাচিত হয়েছেন তরুণ পেশাজীবী নাজ আনিস মিয়া। তার জন্ম স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে এবং বেড়ে উঠেছেন স্কটল্যান্ডেই। তার পৈতৃক নিবাস সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে।

এদিকে ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফে মৌলভীবাজারের একাটুনা ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের আপন দুই বোন একই কাউন্সিলে নির্বাচিত হয়ে নতুন ইতিহাসের সূচনা করেছেন। একজন হচ্ছেন লিবারেল ডেমোক্রেট (লিবডেম) থেকে ড. বাবলিন মল্লিক। তিনি কিনকয়েড ওয়ার্ডে পুনরায় জয়লাভ করেছেন। অপরজন হচ্ছেন ড. বাবলিনের বড় বোন জেসমিন চৌধুরী। তিনি ক্যান্টন ওয়ার্ডে বিরোধী লেবার পার্টি থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া আরেক বাংলাদেশি সালেহ আহমদ হিলি ও ফেয়ার ওয়াটার ওয়ার্ডে লেবার পার্টি থেকে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে চমক দেখিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ড. বাবলিন মল্লিক ও জেসমিন চৌধুরীর বাবা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির জাতীয় পরিষদ সদস্য ও মৌলভীবাজার মহকুমা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি।

এসএসএইচ

Link copied