মারুফ-বাধা পেরিয়ে শিরোপার খুব কাছে বসুন্ধরা

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

০৭ জুলাই ২০২২, ০৬:৫১ পিএম


মারুফ-বাধা পেরিয়ে শিরোপার খুব কাছে বসুন্ধরা

হ্যাটট্রিক শিরোপার খুব কাছাকাছি বসুন্ধরা কিংস। আজ কুমিল্লায় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনীকে ১-০ গোলে হারিয়েছে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা। এই জয়ে বসুন্ধরা কিংস ১৯ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে।

ঢাকা আবাহনীর পয়েন্ট ১৮ ম্যাচে ৩৮। এই রাউন্ডে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের আবাহনী হারলে বসুন্ধরা কিংস চ্যাম্পিয়ন হবে। আবাহনী স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের সঙ্গে ড্র করলে আর বসুন্ধরা কিংস পরের তিন ম্যাচ হারলেও সমস্যা হবে। সেক্ষেত্রে আবাহনী শেষ তিন ম্যাচ জিতলে দুই দলের সমান ৪৮ পয়েন্ট হবে এবং প্লে অফে শিরোপা নিষ্পত্তি হবে।

স্বাধীনতার সঙ্গে আবাহনী জিতলে বসুন্ধরা কিংসকে শিরোপা উৎসবের জন্য আরো এক রাউন্ডে অপেক্ষা করতে হবে। ১৮ জুলাই মুন্সিগঞ্জে সাইফ স্পোর্টিংকে হারালেই লিগে হ্যাটট্রিক শিরোপা জয় হবে কিংসের।

আরও পড়ুন >> জামাল পেলেন কোটি টাকার প্রস্তাব, গরম দলবদলের বাজার

আগের রাউন্ডে এই কুমিল্লা ভেন্যুতে মোহামেডানের বিপক্ষে ড্র করেছিল বসুন্ধরা কিংস। আজ চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে বেশ সতর্ক ছিল অস্কার। বাড়তি সতর্কতার কারণ প্রতিপক্ষের ডাগ আউটে কোচ মারুফুল হক। প্রথমার্ধে দুই দলের কেউ গোল করতে পারেনি।

দ্বিতীয়ার্ধের ১৭ মিনিটে একমাত্র জয়সূচক গোলটি করেন গাম্বিয়ান নুহা মারং। সংঘবদ্ধ এক আক্রমণ থেকে বক্সের মধ্যে দারুণ ফিনিশিং করেন এই ফরোয়ার্ড। মারুফের দল পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে সমতা আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করেছে। অস্কারের দলকে বেশ কয়েকবার বিপদজনক পরিস্থিতিতেও ফেলেছিল। গোলরক্ষক জিকোর দৃঢ়তায় ও মারুফের ফিনিশারদের ব্যর্থতায় ম্যাচে সমতা আসেনি।

আরও পড়ুন >> পদ্মা সেতু পেরিয়ে প্রথম ম্যাচ

অন্য দিকে বসুন্ধরা কিংস ব্যবধান দ্বিগুণের ততোধিক সুযোগ পেয়েছিল। বসুন্ধরা কিংসের সামনে প্রাচীর হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক সাইফুল। কিংসের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন রবিনহো কয়েকবারই গোলের দারুণ সুযোগ তৈরি করেছিলেন। কখনো নিজের ভুলে আবার কখনো সাইফুলের দারুণ সেভে গোল বঞ্চিত হয়েছেন।

১ গোলের ব্যবধানে জিতেও মারুফ বাধা পার হওয়ায় স্বস্তির নিঃশ্বাস নিয়েছেন অস্কার ব্রুজন। আগামীকাল ঈদের আগে শেষ ম্যাচ। মুন্সিগঞ্জ স্টেডিয়ামে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব মুখোমুখি হবে সাইফ স্পোর্টিংয়ের। ঈদের বিরতির পর ১৪ জুলাই থেকে খেলা শুরু হবে। ১৪ জুলাই এক দিনে চার ভেন্যুতে ম্যাচ।

এজেড/এইচএমএ/এটি

Link copied