করোনা নিয়ে দুশ্চিন্তায় গার্দিওলা

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৪৪ এএম


করোনা নিয়ে দুশ্চিন্তায় গার্দিওলা

পিএসজির গ্রুপ ‘এ’ থেকে ম্যানচেস্টার সিটি সেরা দল হয়েই উঠছে দ্বিতীয় রাউন্ডে। তাই শেষ ম্যাচে বেঞ্চের শক্তি পরখ করে দেখতে চান কোচ পেপ গার্দিওলা। তবে তার ভাবনায় ম্যাচের চেয়ে বেশি যেন কাজ করছে জার্মানির করোনা পরিস্থিতি। সংবাদ সম্মেলনে এ কারণে একটু বেশিই উদ্বিগ্ন দেখাল তাকে।

আজ মঙ্গলবার রাতে যখন ম্যানসিটি নামবে জার্মান দল আরবি লাইপজিগের মাঠে, তার আগে স্থানীয় করোনা পরিস্থিতি মোটেও দলটিকে স্বস্তিতে থাকতে দিচ্ছে না সফরকারীদের। ম্যানসিটি কোচ বলেছেন, ‘জার্মানির অবস্থা ভাল নয়। আমাদের দুশ্চিন্তাটা এ নিয়েই। আমাদের মেনে নিতে হবে, এ পরিস্থিতির সমাধান এখনো পাইনি আমরা।

দলের সবার করণীয় কী সেটাও আরও একবার মনে করিয়ে সিটির এই স্প্যানিশ কোচ। বললেন, ‘মাস্ক পরে থাকতে হবে। শারীরিক দূরত্বও বজায় রাখা অত্যন্ত জরুরি। সতর্ক থাকুন।’

জার্মানিতে চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে এ ম্যাচটা খেলা হবে দর্শকহীন মাঠে। সেটা মনে করিয়ে দিয়ে গার্দিওলা বুঝাতে চাইলেন পরিস্থিতির ভয়াবহতা। বললেন, ‘দর্শকদের সামনে খেলতে পারলে আরও ভালো হতো। তবে যদি কর্তৃপক্ষ বলে যে রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামেই খেলতে হবে, তাহলে সেটা মেনেই নিতে হবে আমাদের। এর কারণটাও আপনি জানেন, পরিস্থিতিটা বিপদজনক।’

করোনার কারণেই শেষ পাঁচ ম্যাচে দলের হয়ে খেলতে পারেননি দলের প্রধান তারকা কেভিন ডি ব্রুইনা। তাই যেন এই মহামারি পরিস্থিতি নিয়ে গার্দিওলার ভাবনাটা একটু বেশিই। 

তবে লাইপজিগের বিপক্ষে দলটির জন্য সুখবর, সেই ডি ব্রুইনা ফিরছেন এই ম্যাচ দিয়েই। গার্দিওলা অবশ্য জানালেন, দলের জায়গার জন্য লড়াই করতে হবে তাকে। বললেন, ‘‘কেভিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল। এমন একটা সময়ে এটা হয়েছিল, যখন সে শারীরিকভাবে উন্নতি করছিল, এটা একটা প্রক্রিয়ায় বাধা দিয়েছে। যারা এমন কিছুতে আক্রান্ত হয় পরের কয়েকদিন বেশ শূন্যতা অনুভব করে। কাল (আজ) সে ম্যাচের শুরু থেকেই খেলবে। দেখি কত মিনিট সে খেলে যেতে পারে। ফিরে এসে তাকে জায়গার জন্য লড়তে হবে। আমাকে কিছু দেখাতে হবে না, তবে এটা তার নিজের জন্যই করতে হবে। ’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘প্রতিযোগিতাটা গুরুত্বপূর্ণ। বিষয়টা সে জানে, বের্নার্দো সিলভা, ও বাকি উইঙ্গাররাও জানে। পাঁচ মিনিট হোক কিংবা নব্বই, খেললে নিজেদের জন্য, দলের সবার জন্য নিজের গুণমান জাহির করতে হবে সবাইকেই।’

এনইউ

Link copied