বেরোবিতে শরৎ উৎসব

Dhaka Post Desk

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, বেরোবি

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫৪ পিএম


বেরোবিতে শরৎ উৎসব

আকাশে সাদা মেঘের ভেলা। বাতাসে মিষ্টি সুবাস। চারদিকে কাশফুলের হাতছানি ঠিক। সেই সময় শরৎকালকে বরণ করে নিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রীন ভয়েস আয়োজনে সাজানো হয় বৈচিত্রময় শরৎ উৎসব।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীনতা স্মারক প্রাঙ্গণে এ উৎসবের উদ্ধোধন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আপেল মাহমুদ, মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাজেদুল হক ও আমন্ত্রিত অতিথিরা।

এতে দেখা যায়, হাতে বানানো নানান ধরনের দেশীয় পিঠাপুলি স্টল, নারী উদ্যোক্তার কাপড়ের স্টল, দুর্লভ প্রজাতির গাছের স্টল, দর্শকদের জন্য লাভ কর্নার ও বিরহ কর্নার। এছাড়াও দেশীয় খেলা, মেহেদি স্টল, ঘুড়ি উড়ানো, মেয়েদের বেলুন ফাটানো, সংক্ষিপ্ত আলোচনা ও সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শরৎকালকে বরণ করে নেওয়া হয়।

গেট দিয়ে ঢুকতেই চোখে পড়বে লাভ কর্নার ও বিরহ কর্নার। এসব কর্নারে প্রেমিক-প্রেমিকরা তাদের লাভারকে উৎসর্গ করে তাদের ভালোবাসার কথা ও বিরহের কথা লিখে রেখেছে।

ভেতরে এগোলেই চোখে পড়বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে বানানো হরেক রকমের পিঠার স্টল। পিঠাগুলোর মধ্যে রয়েছে পাটিসাপটা পিঠা, পুলি পিঠা, ডিম সুন্দরি পিঠা, সিদ্ধ পুলি, পাউরুটি রোল, সুজি পিঠা, ফিরনী ও পায়েস।

শিক্ষার্থী আরিফ আরমান বলেন, ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠানের কথা জানতে পেরে সুন্দর আয়োজন দেখে অনেক ভালো লেগেছে। নানান ধরনের পিঠা রয়েছে। আমি পাটিসাপটা পিঠা খেয়েছি স্বাদ হয়েছে অসাধারণ। অনুষ্ঠানটিও ভালো লেগেছে।

শরৎ উৎসবের বেলুন ফাটানো খেলায় অংশ নেওয়া সুরাইয়া আক্তার বলেন, গ্রীন ভয়েস কর্তৃক আয়োজিত বিশেষ খেলা বেলুন ফাটানো খেলায় অংশ নিয়ে ১ম হয়েছি। আমার খুব ভালো লেগেছে। আজকের আয়োজনটা অনেক প্রাণবন্ত ছিল।

এ সময় লাল সবুজ পতাকাওয়ালা একাধিক ঘুড়ি উড়ানো হয়।

অনুষ্ঠানে ঘুরতে আসা সাদাত মাহফুজ বলেন, আজকের অনুষ্ঠানটি ছিল মনোমুগ্ধকর ও ব্যতিক্রমী। অনেকদিন পর ক্যাম্পাসে এমন একটি উৎসব হচ্ছে। দর্শনার্থীদের আকর্ষণ করার জন্য যেমন রয়েছে লাভ ও বিরহ কর্নার। তেমনি রয়েছে পরিবেশবাদী গাছের স্টল। আয়োজনটা অনেক গোছালো মনে হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে আসতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।

গ্রীন ভয়েস বেরোবি শাখার সাধারণ সম্পাদক লিমন ইসলাম বলেন, আমরা আজকের শরৎ ‍উৎসবে বাঙালির ঐতিহ্যকে সকলের মাঝে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আমরা শরতের আবহমান শুভ্রতা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আমরা গ্রীন ভয়েসের সদস্যরা পরিবেশ নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজ করে থাকি। তারই অংশ হিসেবে আজকের এই আয়োজন।

শিপন তালুকদার/এমএএস

Link copied