৫ টাকায় ঈদবাজার

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও 

০১ মে ২০২২, ০৮:৪৬ পিএম


ঠাকুরগাঁওয়ে পাঁচ টাকায় ঈদের বাজার পেয়েছে সাত শতাধিক খেটে খাওয়া মানুষ। রোববার (১ মে) দুপুর ১২টায় জেলা শহরের বড় স্কুল মাঠে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায় (জুলুম বস্তি) এই ঈদবাজারের আয়োজন করে। 

সংগঠনটির সভাপতি সুজন খানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসক ড. মাহবুবুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মো. শামসুজ্জামান, সংগঠনটির উপদেষ্টা ডা. শুভেন্দু কুমার, সহ-সভাপতি জিয়াউর রহমান বকুল, ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ-সভাপতি হাসিনুর রহমান প্রমুখ৷ এ ছাড়াও সংগঠনটির সকল সেচ্ছাসেবীরা উপস্থিত ছিলেন৷ 

পাঁচ টাকার ঈদবাজারে প্রতি প্যাকেটে এক কেজি সেমাই, এক কেজি চিনি, এক কেজি পেঁয়াজ, আধা লিটার তেল, অর্ধকেজি পোলাউয়ের চাল ও একটি করে মুরগি দেওয়া হয়েছে। 

ঈদবাজার পাওয়ার পর রিকশাচালক মশিউর রহমান বলেন, মাত্র পাঁচ টাকায় এতগুলো খাবার জিনিসপত্র পাব আশা করিনি। মনটা ভরে গেল। কোনো কিছু কিনতে পারিনি এবার। ঝড়ে আমাদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তারপরও এতকিছু পেয়ে এবার ঈদটা খুব ভালো যাবে। 

হাজীপাড়ার বিধবা বৃদ্ধা মোমেনা খাতুন বলেন, আমি কোনোদিন এতকিছু একসঙ্গে পাইনি। আজকে পাঁচ টাকার একটা পয়সায় চাল, সেমাই, তেল, পেঁয়াজ, চিনি আর একটা মুরগি পেলাম। এখন মনে হচ্ছে আমাদের ঈদ এসেছে। ঈদ মানে যে খুশি এটা আজ খুব মনে হচ্ছে। 

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায়-এর সহসভাপতি জিয়াউর রহমান বকুল বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সহায় পাঁচ টাকায় ঈদবাজার দিয়েছে। ঈদের আনন্দ সবার মাঝে ভাগ করার জন্য আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। সমাজের বিত্তবান মানুষেরা এগিয়ে আসলে সবার মাঝে ঈদের আনন্দ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব। 

সংগঠনটির সভাপতি সুজন খান বলেন, আমরা পাঁচ টাকায় প্রতিটি পরিবারের জন্য সেমাই,চিনি,পেঁয়াজ, পোলাউয়ের চাল, তেল ও একটি মুরগি দিয়েছি। আমরা আশা করছি এটির মাধ্যমে একটি দুঃস্থ পরিবার ঈদের দিন ভালোভাবে খেতে পারবে। আমরা চেষ্টা করেছি নামেমাত্র টাকা নিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে দিতে। যদি সমাজের বিত্তবান মানুষেরা আরও এগিয়ে আসেন, তাহলে এ আনন্দ আরও সবার মাঝে বিলিয়ে দেওয়া সম্ভব। 

সদর উপজেলা জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মো. শামসুজ্জামান বলেন, জেলা শহরের সহায়ের এটি একটি অন্যন্য উদ্যেগ। যারা ঈদের সময় ভালো কিছু খেতে পারে না, তাদের জন্য এ আয়োজন দৃষ্টান্ত। আজকে সাত শতাধিক মানুষের মাঝে পাঁচ টাকায় ঈদ উপহার দেওয়া হলো। এটি অনেক ভালো একটি কাজ। উপজেলা প্রশাসন ইতোপূর্বেও ভালো কাজের সঙ্গে ছিল,  আগামীতেও  থাকবে। 

জেলা প্রশাসক ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, গত পরশু কালবৈশাখী ঝড় আমাদের জেলায় তাণ্ডব চালিয়েছে। এতে অনেক মানুষের ক্ষতি হয়েছে। আমি মনে করছি আজকে যারা এখানে এসেছেন তারা কোনো না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাদের মাঝে পাঁচ টাকায় সহায় সংগঠনের এই ঈদবাজারকে সাধুবাদ জানাই। এ রকম আয়োজনে থাকতে পেরে আমরা সম্মানিত বোধ করছি। ভালো কাজগুলোতে জেলা প্রশাসন পাশে থাকবে। 

এম এ সামাদ/আরএআর

Link copied