বড় বোনকে আটকে রেখে ছোট বোনকে গণধর্ষণ

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর

১৭ মে ২০২২, ১০:৪৮ পিএম


বড় বোনকে আটকে রেখে ছোট বোনকে গণধর্ষণ

শেরপুরে বড় বোনের সঙ্গে কবিরাজের বাড়ি যাওয়ার পথে স্বামী পরিত্যক্তা এক তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সোমবার (১৬ মে) রাতে সদর উপজেলার লছমনপুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় মামলার পর মঙ্গলবার (১৭ মে) ভোররাতে সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে হাফিজুর রহমান মন্টু (৩৫) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণী গাজীপুরে থাকেন। কয়েক দিন আগে তিনি শেরপুর শহরের চকপাঠক মহল্লায় বড় বোনের ভাড়া বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সোমবার (১৬ মে) সন্ধ্যায় তিনি তার বড় বোনের সঙ্গে সদর উপজেলার লছমনপুর নয়াপাড়া গ্রামের কবিরাজ হাবিবুল্লাহ সাধুর বাড়িতে যাওয়ার জন্য বের হন। পথে লছমনপুর নয়াপাড়া এলাকায় মো. হাফিজুর রহমান মন্টু ও আলম মিয়া তাদের দুই বোনকে জোরপূর্বক ধরে পার্শ্ববর্তী একটি লেবু বাগানের মধ্যে নিয়ে যান। সেখানে কৌশলে বড় বোনকে আটকে রেখে ভুক্তভোগী ওই তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যান মন্টু ও আলম। পরে ওই তরুণীকে সঙ্গে নিয়ে তার বড় বোন থানায় গিয়ে রাতেই মন্টু ও আলমের বিরুদ্ধে মামলা করেন। 

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া ঢাকা পোস্টকে জানান, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে মন্টু নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পলাতক অপর আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। একইসঙ্গে জেলা সদর হাসপাতালে ওই তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে জবানবন্দি গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। দুপুরে গ্রেপ্তার মন্টুকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জাহিদুল খান সৌরভ/আরএআর

Link copied