সন্দ্বীপে স্পিডবোট ডুবি

৪৮ ঘণ্টা পর এক শিশুর লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ২

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

২২ এপ্রিল ২০২২, ১১:৪১ এএম


৪৮ ঘণ্টা পর এক শিশুর লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ২

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের গুপ্তছড়া ঘাটের কাছে স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিন শিশুর মধ্যে একজনের লাশ উড়িরচর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ৪৮ ঘণ্টা পরও বাকি দুই শিশুর সন্ধান মেলেনি।

শুক্রবার (২১ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের সন্দ্বীপ স্টেশনের স্টেশন কর্মকর্তা কিরিটি রঞ্জন বড়ুয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে সংবাদ পাই উড়িরচর এলাকায় সাগর উপকূলে একটি শিশুর লাশ ভাসছে। সংবাদ পেয়ে কোস্টগার্ডের সহায়তায় ছয় বছর বয়সী শিশুর লাশটি সকাল ১০টার দিকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল গুপ্তছড়া ঘাটে থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে শিশুর লাশটি পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, লাশটি জমজ দুই বোন ছয় বছর বয়সী আদিবা ও আলিফার মধ্যে কারও হবে। পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে, তারা এসে শনাক্ত করবেন।  এ ঘটনায় তাদের বড় বোন আনিকার মরদেহ ঘটনার দিন উদ্ধার করা হয়েছিল।

ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা বলেন, স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় আরও দুই শিশু নিখোঁজ রয়েছে। তাদের খোঁজে অভিযান চলছে। তাদের বাড়ি উপজেলার মগধরা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে।

বুধবার (২০ এপ্রিল) সীতাকুণ্ড থেকে ছেড়ে আস একটি স্পিডবোট কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঝড়ের কবলে পড়ে স্পিডবোটটি উল্টে যায় বলে জানান গুপ্তছড়া ঘাটের ইজারাদার মো. আনোয়ার। তিনি ঢাকা পোস্টকে বলেন, সীতাকুণ্ড থেকে সন্দ্বীপের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া একটি স্পিডবোট কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে গুপ্তছড়া ঘাটের কাছাকাছি এসে উল্টে যায়। ভালো আবহাওয়ার মধ্যেই স্পিডবোটটি ছেড়ে গিয়েছিল।

সন্দ্বীপের ইউএনও সম্রাট খীসা বলেন, দুর্ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মঈন উদ্দিনকে ওই কমিটির প্রধান করা হয়েছে।

কেএম/এসএসএইচ

Link copied